৫:৩৭ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে

বেনাপোলে আমদানীকৃত পন্যের ভারতীয় ২টি ট্রাক জব্দ

০৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:১৬ পিএম | জাহিদ


মো.রাসেল ইসলাম, বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি : মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে ভারত থেকে আমদানী হচ্ছে ইমিটেশন জুয়েলারীর একটি পণ্য চালান। 

এমন সংবাদের অভিযোগে রবিবার রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে কাষ্টমস্ কর্তৃপক্ষের আইআরএম এর একটি প্রতিনিধি দল অভিযান চালিয়ে বেনাপোল বন্দরের জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে পণ্য বোঝাই ২টি ১০ চাকার ভারতীয় ট্রাক জব্দ করেছে ।  এ সময় আরো জব্দ করা হয়েছে ঐ ট্রাক দুটির চাবিসহ সকল কাগজ পত্র। 

জব্দকৃত পণ্য চালানটির আমদানীকারক ঢাকার আনাস এন্টারপ্রাইজ।  যার মেনিফেষ্ট নং ৩৯৯৬১/২, তাং-০৪.১১.১৮,।  পণ্য চালানটির রপ্তানী কারক প্রতিষ্ঠান ভারতের জেইন এক্সপোর্ট।  আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান গত ১লা নভেম্বর-২০১৮ ঢাকার মেঘনা ব্যাংক লিমিটেড থেকে একটি এলসি খোলেন পণ্যটি আমদানী করার জন্য।  যার এলসি নং০০০০৩২৫২১৮০১০৩৪০ ।  তাং-০১.১১.১৮।  পণ্য চালানটির ইনভয়েজ মুল্য দেখানো হয়েছে ২৬১৬২ মার্কিন ডলার। 

বেনাপোল কাষ্টমস হাউসের ইনভেষ্টিগেশন রিসার্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট গ্রুপের একটি প্রতিনিধি দল জব্দকৃত মালামাল পরিক্ষন করবেন।  পরীক্ষনে পণ্যচালানটির মালামাল ঘোষনার সাথে মিল আছে কিনা তাও দেখবেন।  তবে পণ্য চালানটিতে আমদানীকৃত পণ্যের ঘোষনায় আছে প্লাষ্টিক বাংলা এন্ড আদার্স। 

বেনাপোল কাষ্টম হাউসের সহকারী কমিশনার উত্তম চাকমা জানান গোপন সুত্রে সংবাদ পায় একজন আমদানীকারক ভারত থেকে মিথ্যা ঘোষনার মাধ্যমে একটি পণ্য চালান বেনাপোল বন্দরে নিয়ে আসছে। 

এমন সংবাদে রবিবার রাতে আইআরএম টিমের প্রতিনিধি সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মোস্তফা আবদুল্লাহ আল মামুনকে সাথে নিয়ে বন্দরের জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে পণ্য বোঝাই দুটি ভারতীয় ট্রাক জব্দ করি।  যার নং ডই-৫১-৭০৮৬, ইি-২৩-ই২৩৭৬)পরে ভারতীয় ট্রাক ২টি বেনাপোল কাষ্টম হাউসে নিয়ে আসা হয়।  মঙ্গলবার মালামাল পরীক্ষণ করা হবে।  মিথ্যা ঘোষনা এবং অমিল পাওয়া গেলে আইনের আওতায় এনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 

তবে জব্দকৃত ট্রাক ২টির ড্রাইভার দুলাল দাস এবং তপন কুমার প্রাথমিক ভাবে জানান তাদের গাড়ী ২টিতে ইমিটেশন জুয়েলারী জাতীয় পণ্য আছে।  তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন সি এন্ড এফ এজেন্ট ও অন্য কোন প্রতিনিধিকে পাওয়া যায়নি। 



keya