১১:৪২ এএম, ১৯ আগস্ট ২০১৮, রোববার | | ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯


বাবুগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার্থী অপহরণ

১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৮:৫২ এএম | জাহিদ


প্রিন্স তালুকদার, বাবুগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি: বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী, এসএসসি পরিক্ষার্থীনী রুমানাকে (১৫) অপহরণ করা হয়েছে।  অপহরণের তিনদিন পেরিয়ে গেলেও অপহরণকারীদের হুমকিতে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না মেধাবী ছাত্রী, এসএসসি পরিক্ষার্থীনী রুমানার পরিবার। 

সরোজমিনে জানাযায়, উপজেলার সিংহেরকাঠী গ্রামের আনিচ হাওলাদারের মেয়ে, মেধাবী ছাত্রী, এসএসসি পরিক্ষার্থীনী রুমানাকে পার্শ্ববর্তী রফিয়াদী গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে নাঈম হোসেন (২৩) বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে কুপ্রস্তাব দিত এবং জোর করে আজ হোক, কাল হোক জোর করে বিয়ে করবে বলে হুমকী দিয়ে আসছিল।  এই বিষয়টি সম্ভ্রান্ত ও আর্থিক সচ্ছল মেধাবী ছাত্রী, এসএসসি পরিক্ষার্থী রুমানা পরিবার একাধিকবার পরবিত্তলোভী কামাল হোসেনের পরিবারকে বার-বার অবহিত করলেও তারা কর্ণপাত করেনি। 

তারই ধারাবাহিকতায় ৭ই ফেব্রুয়ারী (বুধবার) উপজেলার পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী, এসএসসি পরিক্ষার্থী রুমানা পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে বের বাড়ীতে আসার পথে নির্জন স্থানে পূর্ব হতে ওৎ পেতে থাকা নাঈম ও তার সহযোগীরা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে, মুখে রুমাল চেপে ধরে জোর করে অপহরণ করে মাইক্রোবাসে করে নিয়ে যায়। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রুমানার এক নিকটাত্নীয় জানান, রুমানাকে অপহরণের পর সাবেক সর্বহারা নেতা, অপহরনকারী নাঈমের চাচা মোস্তফা আমাদের চুপচাপ থাকতে বলছে।  আমরাই এখন জীবনের ঝুকিতে আছি।  তবে নাঈমের পরিবারের ইন্ধনে অপহরণ হয়েছে। 

অপহরণকারী নাঈমের বাবা কামাল হোসেন বলেন, ছেলে রুমানাকে কোথায় কেমন আছে বলতে পারি না।  এলাকাবাসী অপহরণকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও নাবালিকা রুমানাকে উদ্ধারের জন্য প্রশাসনের নিকট দাবী জানিয়েছেন।