৯:২৩ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার | | ১১ মুহররম ১৪৪০


ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছে বছর শেষে

০১ জানুয়ারী ২০১৮, ১০:০৭ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম : বিদায়ী ২০১৭ সালে দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মুনাফা বেড়েছে।  বছরের শেষ দিন রোববার বিভিন্ন ব্যাংক তাদের পরিচালন মুনাফার প্রাথমিক হিসাব জানিয়েছে। 

এতে দেখা যায়, প্রায় সব ব্যাংকের মুনাফাই আগের বছরের চেয়ে বেড়েছে। 

ব্যাংকগুলো বলছে, বাড়তি মুনাফা এসেছে মূলত পণ্যবাণিজ্য থেকে।  সদ্য বিদায় নেওয়া বছরে আমদানি বেশ বেড়েছে।  এতে ব্যাংকগুলোও ভালো ব্যবসা করতে পেরেছে।  এদিকে খেলাপি ঋণ পুনঃ তফসিল করার সুযোগ দিতে গত শনিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগ খোলা ছিল।  এ সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন ব্যাংক প্রায় দেড় শ প্রতিষ্ঠানের খেলাপি ঋণ পুনঃ তফসিল করে নিয়মিত করেছে।  ফলে তারা বাড়তি মুনাফা দেখাতে পেরেছে।  কারণ পুনঃ তফসিল করায় খেলাপি ঋণের বিপরীতে প্রভিশন বা মুনাফা থেকে টাকা সঞ্চিতি রাখতে হয়নি। 

রাতে সব ব্যাংকের পরিচালন মুনাফার হিসাব পাওয়া যায়নি।  যেসব ব্যাংকের হিসাব পাওয়া গেছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মুনাফা করেছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড।  এ ব্যাংকটির মুনাফা হয়েছে ২ হাজার ৪২০ কোটি টাকা, যা আগের বছর ছিল ২ হাজার ৩ কোটি টাকা। 

এ ছাড়া পূবালী ব্যাংক এ বছর ৯১৫ কোটি টাকা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর ছিল ৭০৩ কোটি টাকা।  ২০১৭ সালে মেঘনা ব্যাংক ১০২ কোটির জায়গায় ১১০ কোটি, মার্কেন্টাইল ব্যাংক ৪৩৯ কোটির জায়গায় ৭১১ কোটি, মিডল্যান্ড ব্যাংক ১১০ কোটির জায়গায় ১২০ কোটি, মধুমতি ব্যাংক ৯২ কোটির জায়গায় ১৫১ কোটি, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ৩৪৯ কোটির জায়গায় ৪১৭ কোটি, এনআরবি ব্যাংক ৮১ কোটির জায়গায় ৯৭ কোটি, এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক ১৭১ কোটি টাকার জায়গায় ২০২ কোটি, এনআরবি গ্লোবাল ৯৮ কোটির জায়গায় ১৬১ কোটি, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ১৫৪ কোটির জায়গায় ১৮২ কোটি, প্রিমিয়ার ব্যাংক ৩৩২ কোটির জায়গায় ৪৫০ কোটি, ইউনিয়ন ব্যাংক ১৮৫ কোটির জায়গায় ২৩০ কোটি এবং রূপালী ব্যাংক ৫১১ কোটি টাকা মুনাফা করেছে।  এনসিসি ব্যাংক এ বছর মুনাফা করেছে ৫৩০ কোটি টাকা, যা আগের বছর ৪৫৬ কোটি টাকা ছিল। 

এ ছাড়া ইস্টার্ন ব্যাংক ৭৪৯ কোটি, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক ৪৭০ কোটি, ব্যাংক এশিয়া ৬৭০ কোটি, আল-আরাফাহ্‌ ইসলামী ৮০৯ কোটি, ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংক ৭৫০ কোটি, যমুনা ব্যাংক ৪৮৫ কোটি, আইএফআইসি ৫০৪ কোটি, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ৩৬০ কোটি ও শাহজালাল ব্যাংক ৩৬০ কোটি টাকা মুনাফা করেছে।  এখন পর্যন্ত পাওয়া হিসাবে সবচেয়ে কম মুনাফা করেছে ফারমার্স ব্যাংক।  এ ব্যাংকের মুনাফা হয়েছে ২৬ কোটি টাকা।  অন্যদিকে সিটি ব্যাংকের মুনাফা কমেছে।  ২০১৬ সালে ব্যাংকটি ৭৫৬ কোটি টাকা মুনাফা করেছিল, যা এ বছর ৬৯৭ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। 

ব্যাংকের মুনাফার এ হিসাব প্রাথমিক।  চূড়ান্ত হিসাব শেষে পরিচালন মুনাফা থেকে সঞ্চিতি ও কর কেটে প্রকৃত মুনাফার হিসাব করা হবে।  পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মুনাফা থেকে কর বাবদ কর্তন করা হবে ৪০ শতাংশ।  তালিকাবহির্ভূত ব্যাংকের ক্ষেত্রে এ হার হবে সাড়ে ৪২ শতাংশ।