৮:৩৯ এএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯, রোববার | | ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




বরগুনায় বেড়িবাঁধ-স্লুলিজ ভেঙে যান চলাচল বন্ধ

০১ আগস্ট ২০১৯, ১২:২৮ পিএম | নকিব


মোঃ মেহেদী হাসান,বরগুনা :বরগুনা তালতলী উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নের তালুকদার পাড়া গ্রামের বেড়িবাঁধ-স্লুলিজ ভেঙে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। 

যান চলাচল বন্ধ হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঐ এলাকার সাধারণ মানুষ ।  তালুকদার পাড়া, চরপাড়া, নক্রি, গাবতলি গ্রামের মানুষের উপজেলা শহরে যোগাযোগের একমাত্র রাস্তা এটি। 

বেড়িবাঁধ ও স্লুলিজ উত্তাল পায়রার ভয়াল থাবায় ক্রমাগতভাবে ভাঙন সৃষ্টি হয়ে এখন তা মারাত্মক রুপ ধারন করেছে । বেড়িবাঁধ ও স্লুলিজ ভেঙে যাওয়ায় ঐ এলাকার সাধারণ মানুষ চরম আতঙ্কে রয়েছে। দ্রুত বেড়িবাঁধ ও স্লুলিজটি পুননির্মান না হলে ক্ষতির মুখে পরবে ছোটবগী ইউনিয়নের বেশকিছু গ্রামের কৃষকরা নদীর জোয়ারের পানিতে প্রায় চাষাবাদের ৪হাজার একর জমি তলিয়ে যায় যার কারনে কয়েক হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। 

সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বেড়িবাঁধ ও স্লুলিজ ভাঙার ফলে এলাকাবাসীর চলাচলে কষ্ট হচ্ছে।  বিশেষ করে বৃদ্ধা ও স্কুল গামী শিশুদের চলাচলে বেশি কষ্ট হচ্ছে।  চলতে গিয়ে কেউ আবার পা পিছলে গর্তে পরে যাচ্ছে।  পায়রা নদীর ভয়াল থাবায় স্লুলিজ ও বেড়িবাঁধ ভেঙে এখন ভয়ঙ্কর রুপ ধারন করেছে। কয়েক মাস ধরে রাস্তার মাঝখানের স্লুলিজ ভেঙ্গে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।  সেখানে ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে। 

স্থানীয়রা নিজ উদ্যোগে বাঁশ ও কাঠের তক্তা দিয়ে গর্তটি মেরামতের চেষ্টা করেন।  কিন্তুু গর্ত দিন দিন গর্তটি বড় হতে থাকায় এলাকাবাসীর উদ্যোগ কোন কাজে আসছেনা। এই এলাকার মানুষ বেশী কৃষক। বেড়িবাঁধ ও স্লুলিজ ভেঙে এলাকার কয়েক হাজার মানুষ উপজেলা শহরের সাথে যোগাযাগ একেবারে বিছিন্ন হয়ে গেছে।  ওই এলাকার মানুষ দের এখন তালতলী বাজারে পন্য-সামগ্রী নিয়ে আশা সম্ভব হচ্ছে না। এবং বর্ষা মৌসুমের কারনে বিকল্প কাচাঁ রাস্তা দিয়েও আসা সম্ভব হচ্ছে না। এখনই বেড়িবাঁধ-স্লুলিজ এর মেরামতের উদ্যোগ না নিলে আমাদের এখন আমন মৌসুম যে কোন সময় আমাদের জমি-জমা পায়রা নদীর গ্রাসের কবলে পড়তে পারে। 

স্থানীয় গাড়ি চালক মোঃ আউয়াল তালুকদার বলেন বর্তমানে এলাকার লোকজনের খুব ভোগান্তি হচ্ছে। আমাদের স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াত করতে খুব কষ্ট হচ্ছে। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা ১০ কিলোমিটার কাচাঁ রাস্তা ঘুরে বগী হয়ে তালতলীতে আসে। 

১০ কিলোমিটার কাচাঁ রাস্তা ঘুরে আসতে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি হচ্ছে। ইউপি চেয়ারম্যান জনাব তৌফিকুজ্জামান তনু তার কাছে আমরা বিষয় নিয়ে কথা বলছি সে আমাদেরকে আশ্বাস দিছেন খুব দ্রুত পদক্ষেপ নিব। খুব দ্রুত পদক্ষেপ না নিলে বেড়িবাঁধ -স্লুলিজটি ভেঙে গেলে আমাদের প্রায় ৪ হাজার একর জমি পানিতে তলিয়ে যাবে এবং পানি নিষ্কাশনে কোনো ব্যাবস্হা থাকবে না। বেড়িবাঁধ -স্লুলিজটি অনেকবার করা হয়েছে কিন্তু দুর্বল কন্টাক্টশনের কারনে বারবার ভেঙে যেতেছে। আমাদের বেড়িবাঁধ -স্লুলিজটি স্থায়ী মেরামত করা খুবই জরুরী। 

ছোটবগী ইউপি চেয়ারম্যান ও তালতলী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জনাব তৌফিকুউজ্জামান তনু মুঠোফোনে বলেন,আমি পানি উন্নয়ন বোর্ড ও জেলা প্রশাসকের কাছে অবগত করেছি কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। তিনি আরো বলেন বেড়িবাঁধ-স্লুলিজটি মেরামত না হলে ৪হাজার একর জমি তলিয়ে যাবে ও কয়েক হাজার মানুষের পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হবে। চরপাড়া এলাকাটি সাগরের কাছে ও তিন নদীর মোহনায় বিধায় যেকোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। 

বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক চন্দ্রের মুঠোফোনে বারবার চেষ্টা করে ও পাওয়া যায় নি। 


keya