৬:১০ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২০, সোমবার | | ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২




ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটে ভ্যাট কমলো ১০ শতাংশ

৩০ আগস্ট ২০২০, ১০:০৯ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কমঃ ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাখাতে ৫ শতাংশের অতিরিক্ত মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট প্রত্যাহার করেছে সরকার।  যা আগে ছিল ১৫ শতাংশ। 
ইন্টারনেট গ্রাহকরা যে ৫ শতাংশ ভ্যাট দিতো সেই ভ্যাটই এখন এই প্রক্রিয়ায় জড়িত সব পক্ষই সমানভাবে পাবে। 

ইন্টারন্যাশনাল টেরিস্টেরিয়াল কেবল (আইটিসি), ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) ও নেটওয়ার্ক ট্রান্সমিশন সেবাদাতাদের (এনটিটিএন) সেবার ক্ষেত্রে ৫ শতাংশের অতিরিক্ত ভ্যাট থেকে অব্যাহতি দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। 

ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট খাতে ভ্যাট জটিলতার সমাধান না হলে সারা দেশে কিছু সময়ের জন্য ইন্টারনেট বন্ধের হুমকি দিয়েছিল ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতাদের সংগঠন আইএসপিএবি।  তাদের হুমকির প্রায় দেড় মাস পর বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) এ সংক্রান্ত গেজেট প্রকাশ করলো অর্থ মন্ত্রণালয়। 

সিনিয়র সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২ এর ১২৬ ধারার ১ নম্বর উপধারার ক্ষমতাবলে সরকার ইন্টারন্যাশনাল টেরিস্টেরিয়াল ক্যাবল (আইটিসি), ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) ও নেশনওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক (এনিটিটিএন) সেবার ক্ষেত্রে ৫ শতাংশের অতিরিক্ত মূল্য সংযোজন কর থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো।  এর ফলে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো অতিরিক্ত ভ্যাটের বোঝা থেকে মুক্ত হলো। 

এবিষয়ে আইএসপিএবি সেক্রেটারি এমদাদুল হক বলেন, এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে ভ্যাট জটিলতার অবসান হবে।  তবে গ্রাহদের ক্ষেত্রে কোনো প্রভাব পড়বে না।  সেবাদাতাদের ক্ষেত্রে এ ভ্যাট কমানো হয়েছে।  ফলে ইন্টারনেট সেবাদাতারা ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবে এবং যে টাকা তাদের অতিরিক্ত ভ্যাট বাবদ দিতে হতো তা এ খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে গ্রাহকদের আরও উন্নত সেবা দিতে পারবে। 

আইএসপিএবির তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে সারা দেশে ৮০ লাখের বেশি বাড়িতে তারের মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযোগ রয়েছে এবং ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন প্রায় সাড়ে ৩ কোটি গ্রাহক।