৯:১৬ পিএম, ১৬ মে ২০২২, সোমবার | | ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩




বার্সার নাটকীয় জয়

১১ এপ্রিল ২০২২, ১২:১৭ পিএম |


এসএনএন২৪.কম:  প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে রোমাঞ্চ ছড়াল ।  দুই পেনাল্টির একটি কাজে লাগিয়ে এগিয়ে গেল লেভান্তে কিন্তু এরপরের দশ মিনিটে দুই গোল করে চালকের আসনে বসে বার্সেলোনা। 

তবে আবারও পেনাল্টি আদায় করে সমতা টানে স্বাগতিকরা।  একদম শেষ মুহূর্তের গোলে দারুণ জয় পায় বার্সেলোনা। 

স্প্যানিশ লা লিগায় রোববার রাতে এমনই এক ম্যাচে লেভান্তের বিপক্ষে ২-৩ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সা।  লেভান্তের হয়ে গোল করেছেন মোরালেস ও মেরেলো।  বার্সেলোনার তিন গোল অবামেয়াং, পেদ্রি ও লুক ডি ইয়ংয়ের। 

এদিন শুরু থেকেই বার্সেলোনার উপর চড়াও হয়ে খেলে লেভান্তে।  সুযোগ তৈরি করে বেশ কয়েকবার।  ২৬ মিনিটে গোললাইন ক্লিয়ারেন্সে বার্সেলোনাকে রক্ষা করে গার্সিয়া।  বেশ খানিকটা দূর থেকে বল নিয়ে বার্সেলোনার দুই-তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সে ঢুকে গোলের উদ্দেশ্যে শট নেন মোরালেস, তার নেওয়া শট টের স্টেগানের হাতে লেগে গতি কমে যাওয়ায় গোললাইন থেকে ফিরিয়ে দেন গার্সিয়া। 

খেলার ৪৯তম মিনিটে ফেরান তোরেসের গতির হেড দক্ষতার সহিত ফিরিয়ে দেন লেভান্তে গোলরক্ষক।  তবে ৫২তম মিনিটে নিজেদের বক্সে ভুল করে বসেন দানি আলভেস, লেভান্তের হাভিয়ের সনকে ফেলে দেন ব্রাজিলিয়ান এই ডিফেন্ডার।  পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।  সফল স্পট কিকে লেভান্তেকে এগিয়ে নেন মোরালেস।  চার মিনিট বাদে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ নষ্ট করে লেভান্তে।  আবারও পেনাল্টি আদায় করে নিলেও স্বাগতিকদের ব্যবধান বাড়াতে পারেনি রোজার।  তার নেওয়া শট ঝাঁপিয়ে রক্ষা করেন স্টেগান। 

লেভান্তের ভুলের সুযোগ দারুণ ভাবে কাজে লাগিয়ে ম্যাচে সমতা টানে বার্সেলোনা।  ৫৯তম মিনিটে দেম্বেলের ক্রসে হেডে জাল খুঁজে নেন অবামেয়াং।  ৬৩তম মিনিটে পেদ্রির গোলে লিড নেয় বার্সেলোনা।  গাবির বাড়ানো পাসে বক্সের ভেতর থেকে নিচু করে নেওয়া শটে দুরের পোস্টে বল জড়ান এই তরুণ ফুটবলার। 

ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে পেনাল্টি গোলে সমতায় ফেরে লেভান্তে।  সফল স্পট কিকে ম্যাচ জমিয়ে তুলেন মেলেরো।  কিন্তু তখনো ছিল নাটকীয়তার বাকি।  নব্বই মিনিট শেষে যোগ করা দুই মিনিটে বার্সেলোনা পেয়ে যায় জয়সূচক গোল।  দেভিদ আলবার ক্রসে বক্সের ভেতর থেকে হেডে দারুণ গোল করেন ডাচ ফরোয়ার্ড লুক ডি ইয়ং।  গোলের পর উল্লাসে মাতে বার্সেলোনার ডাগ আউট। 

৩০ ম্যাচে ১৭ জয়, নয় ড্র ও চার হারে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানেই থাকল বার্সেলোনা।  ৩১ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে রেলিগেশন জোনে লেভান্তে।  ৩১ ম্যাচে ৭২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ।  সমান ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে সেভিয়া। 


keya