১০:০২ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৭ সফর ১৪৪১




বড় হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে সাম্প্রদায়িক শক্তি: কাদের

২৬ জুন ২০১৯, ১০:০৪ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম : সাম্প্রদায়িক শক্তি ভেতর ভেতর বড় ধরনের হামলা পরিচালনার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।  

তিনি বলেন, আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।  দেশের জনগণ ও অসাম্প্রদায়িক শক্তিকে নিয়ে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। 

মঙ্গলবার (২৫ জুন) সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে দলের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার উদ্বোধনের আগে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, যে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীন হয়েছে, যে চেতনার ভিত্তিতে দেশ স্বাধীন হয়েছে, সেই চেতনাবিরোধী শক্তি এখনও দুর্বল এ কথা মনে করার কোনো কারণ নেই। 

তিনি বলেন, এখনো অসাম্প্রদায়িক সেই বাংলাদেশকে মানবতাবিরোধী শক্তি হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।  এখনো জঙ্গিবাদ ভয়ঙ্কর রূপে মাঝে মধ্যে আবির্ভূত হয়।  হলি আর্টিজান, শোলাকিয়ার সেই ট্র্যাজেডির পর আমরা যদি মনে করি সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তির পতন হয়েছে, তাহলে আমরা শ্রীলঙ্কার মতোই ভুল করবো।  আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে।  মনে রাখতে হবে এখনো ষড়যন্ত্র চলছে। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনা সরকার নির্বাচনে বিপুলভাবে বিজয়ী হয়ে চতুর্থবারের মতো ক্ষমতায় এসেছে, এটা পাকিস্তানপন্থী অশুভ শক্তিরা মেনে নিতে পারছে না।  অশুভ শক্তি আমাদের এই সরকারে বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে। 

অসাম্প্রদায়িক চেতনা থেকে আওয়ামী লীগ একচুলও সরেনি দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সাংস্কৃতিক অঙ্গনে আমাদের নিয়ে একটা বিভ্রান্তি রয়েছে যে, আওয়ামী লীগ নির্বাচনী অ্যালায়েন্সের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার চেতনা-মূল্যবোধের পরিপন্থী কাজ করছে।  আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই, কৌশলগত কারণে কিছু পরিবর্তন হয়েছে।  কিন্তু আদর্শিকভাবে, বাংলাদেশের জন্মের চেতনা থেকে, আমাদের শিকড় থেকে আমরা একচুলও সরে যাইনি।  আমরা আমাদের শিকড়ের সঙ্গে আছি, থাকবো। 

সাংস্কৃতিক অঙ্গনের শিল্পীদের পাশে সবসময়ই শেখ হাসিনা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে সংস্কৃতির সবচেয়ে বড় পৃষ্ঠপোষক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  সাংস্কৃতিক অঙ্গনে আমাদের সংস্কৃতিবান শিল্পী সাহিত্যিকদের দুঃখের দিনে পাশে দাঁড়ানোর এমন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার মতো কেউ ছিলেন না।  সংস্কৃতির সঙ্গে যারা জড়িত আপনারা কোনো অবস্থাতেই হতাশ হবেন না।  আপনাদের বিপদে-সংকটে তিনি আপনাদের পাশে রয়েছেন। 

আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, সদস্য সচিব অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কেন্দ্রীয় সদস্য রিয়াজুল কবির কাওসার, মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত, সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।