৫:০৮ এএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




ভান্ডারিয়ায় ইটভাটা শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৪:৫৩ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় সমীর সাধক (২২) নামে এক ইটভাটা শ্রমিককে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে অজ্ঞাত দুর্বত্তরা।  শনিবার দিবাগত রাতের দিকে উজেলার উত্তর শিয়ালকাঠি গ্রামে এ হত্যাকান্ড ঘটে।  পুলিশ রোববার সকালে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে নিহতর লাশ উদ্ধার করেছে।  নিহত শ্রমিক সমীর সাধক উপজেলার ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়নের উত্তর শিয়ালকাঠি গ্রামের মনোরঞ্জন সাধকের মেজ ছেলে। 

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সমীর সাধক পিরোজপুরের হুলারহাটে একটি ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করত।   দুইদিন আগে সে ছুটি নিয়ে গ্রামের বাড়ি ভান্ডারিয়ার উত্তর শিয়ালকাঠিতে আসে।  শনিবার সন্ধ্যায় সে বাড়ি থেকে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে বের হয়।  রাতের দিকে একদল অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত তাকে বাড়ির কাছাকাছি আটকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নৃশংসভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।  এসময় দুর্বৃত্তরা তার বুক ও পেটের বামদিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে।  আহত সমীর জীবন বাঁচাতে দৌড়ে প্রতিবেশী সজল বেপারীর বসত ঘরে আশ্রয় নেয়।  একটু পড়ে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে প্রতিবেশীরা সমীরের বাড়িতে এবং থানায় খবর দেয়।  পুলিশ খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল হতে আশংকাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক  তাকে মৃত ঘোষণা করে। 

ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্যপ্লেক্স  এর জরুরী বিভাগের চিকিৎক ডাঃ পূলক  চন্দ্র বৈদ্য জানায় হাসপাতালে মৃত্যু অবস্থায় নিয়ে আসে তবে পেশাদার খুনিয়ার এ হত্যা কন্ডা ঘটিয়েছে বলে তার ধারাণা। 

ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহাবুদ্দিন হত্যাকান্ডের বিষয় নিশ্চিত করে জানান, হাসপাতাল হতে ওই শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রোববার পিরোজপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে।  হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করা যায়নি।  তবে মাদক সংক্রান্ত বিরোধে  এ হত্যাকান্ড ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। 



keya