১১:১৭ পিএম, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, শনিবার | | ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




ভাবীর সাথে অভিমান করে সুনামগঞ্জে কলেজ ছাত্রের আত্বহত্যা!

১০ জুলাই ২০১৮, ০৯:৩৯ পিএম | মাসুম


হাবিব সরোয়ার আজাদ, সিলেট প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ভাবীর সাথে অভিমান করে আক্তার হোসেন নামের এক কলেজ আত্বহত্যা করলেন। 

সে উপজেলার শ্রীপুর (উত্তর) ইউনিয়নের বালিয়াঘাট সড়ক পাড়ার মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে। 

পাঁচ ভাই ও এক বোনের মধ্যে ভাইদের থেকে আক্তার ছিল চতুর্থ । 

মঙ্গলবার বিকেলে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে জেলা সদর মর্গে পাঠিয়েছে। ’

নিহত আক্তার উপজেলার দিগেন্দ্র বর্মণ ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণীতে অধ্যরত ছিল। ’

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, উপজেলার বালিয়াঘাট সড়কপাড়ার কলেজ ছাত্র আক্তার সোমবার রাতের খাবার দিতে দেড়ি হওয়ায় বড়ভাই রুমানের স্ত্রী সাথে কথাকাটাকাটি করে অভিমান করে রাতে না খেয়েই বসতঘরের বারান্দায় শোবার ঘরে ঘুমিয়ে
পড়ে। ’

এদিকে বয়োবৃদ্ধা মা হাবিবা বেগম মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ছেলেকে নাস্তা খেতে শোবার ঘরে ডাকাডাকি করলে ভেতর থেকে
কোন সাড়া না পেয়ে পরিবারের অন্যদের নিয়ে দরজা ভেঙ্গে ভেতরে ডুকে বারান্দার শো আড়ার সাথে গলায় রশি লাগানো আক্তারের
ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান। ’

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুপুরে সুরতহাল শেষে লাশ সন্ধায় সুনামগঞ্জ সদর মডেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। ’

নিহতের সহোদর বড়ভাই রুমান মঙ্গলবার রাতে জানায়, আক্তারের অভিমানের বিষয়টি আমাদের জানা নেই। ’ কী কারনে সে
আত্বহত্যা করলো এমন প্রশ্নের উওর এড়িয়ে গিয়ে রুমান জানায় তাও আমাদের পরিবারের কারোই জানা নেই। ’

তাহিরপুর থানার ওসি শ্রী নন্দন কান্তি ধর মঙ্গলবার রাতে বললেন, কলেজ ছাত্রের আত্বহত্যার কারন সম্পর্কে পরিবারের লোকজন সুনিদ্রিষ্ট ভাবে কিছুই বলেনি, তদন্ত অব্যাহত আছে, পরবর্তীতে আত্বহত্যার কারন হয়ত জানা যাবে। 



keya