৪:৩০ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৮, বুধবার | | ৫ জ্বিলকদ ১৪৩৯


ভোলায় প্রয়োজনের তুলনায় কম সাইক্লোন শেল্টার

০২ জুলাই ২০১৮, ০৬:১৫ পিএম | সাদি


ফয়সল বিন ইসলাম নয়ন, ভোলা প্রতিনিধি : ভোলায় প্রয়োজনের তুলনায় সাইক্লোন শেল্টারের পরিমান অনেক কম।  যেগুলো আছে তারও অধিকাংশ দীর্ঘ দিনের পুরনো, জীর্ণ-শীর্ণ, ব্যবহার অনউপযোগী। 

তা ছাড়া ধারণ ক্ষমতার চেয়ে কয়েক গুণ বেশি দুর্যোগ আক্রান্ত মানুষকে গাদাগাদি করে থাকতে হয় বিধায় অনেকেই সাইক্লোন শেল্টারে যেতে চায় না। 

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পুরনোগুলো সংস্কারসহ প্রয়োজনীয় সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। 

ভোলা এমনিতেই দুর্যোগ কবলিত দ্বীপ জেলা।  প্রতি বছরই ঝড় জলোচ্ছাস সহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে বহু লোকের প্রাণহানী ঘটে। 

দুর্যোগের সময় নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার জন্য জেলার ৭ উপজেলায় যেখানে সহস্রাধিক সাইক্লোন শেল্টারের প্রয়োজন সেখানে  সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে আছে মাত্র ২ শত ৮৪টি আশ্রয়কেন্দ্র। 

দুর্যোগের সময় এসব আশ্রয় কেন্দ্র ছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য প্রায় ৪ শত প্রতিষ্ঠানে মানুষ আশ্রয় নিয়ে থাকে।  সেখানে যেতেও নানা বিড়ম্বনা থাকার কারণে মানুষ যেতে অনাগ্রহী হয়ে পড়ে। 

২২ লাখ জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত জেলা ভোলার সকলেই দুর্যোগ ঝুঁকিতে রয়েছে।  তবে  জেলার ছোট বড় অর্ধশতাধিক দ্বীপচরের ৫ লক্ষাধিক মানুষ রয়েছে অধিক ঝুঁকির মধ্যে।  এসব মানুষের ঝুঁকি হ্রাসে জরুরি ভিত্তিতে আরও সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণ করা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন ভোলার ঘুর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির উপ-পরিচালক।  

এব্যাপারে উপ-পরিচালক, ঘুর্ণিঝড় প্রস্তুতি কেন্দ্রের মো: শাহাবুদ্দিন মিয়া জানান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ভোলায় বর্তমানে ৪২টি সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণের কাজ চলছে।  এ ছাড়া আরও ৬৭টি শেল্টার নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ চলছে। 



keya