৫:২২ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১৪ মুহররম ১৪৪০


ভোলায় শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে প্রস্তুতি মূলক সভা অনুষ্ঠিত

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৩:৫৫ পিএম | জাহিদ


গোপাল চন্দ্র দে, ভোলা প্রতিনিধি : আসন্ন শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ভোলা জেলা ও সদর উপজেলা শাখার যৌথ আয়োজনে প্রস্তুতি মূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে ভোলার মদন মোহন ঠাকুর জিউর মন্দিরে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  সভায় বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ভোলা জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ দুলাল চন্দ্র ঘোষের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি শিবু কর্মকার, রাধে শ্যাম দত্ত, সমীর কান্তি দাস, যুগ্ম-সম্পাদক অসীম কুমার সাহা, মদন মোহন ঠাকুর জিউর মন্দিরের সভাপতি প্রভাষক রাম কৃষ্ণ বনিক দুলাল, সম্পাদক প্রভাষক বিপ্লব কুমার পাল কানাই, দৌলতখান উপজেলা পূজা পরিষদের সাধারন সম্পাদক নিপুন চন্দ্র হাওলাদার, তজুমদ্দিন পূজা পরিষদের সম্পাদক খোকন চন্দ্র দাস, লালমোহন উপজেলা পূজা পরিষদের সদস্য জয়ন্ত নন্দী, বোরহানউদ্দিন পূজা পরিষদের সম্পাদক ইন্দ্রজীত হালদার, সদর উপজেলা পূজা পরিষদের সভাপতি শান্ত ঘোষ সহ প্রমুখ। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ভোলা সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজন সাহা, গন সংযোগ সম্পাদক মিঠু দে সহ বিভিন্ন মন্দির থেকে আগত দূর্গা পূজা মন্দির কমিটির সভাপতি, সম্পাদক সহ প্রতিনিধি বৃন্দ। 

অনুষ্ঠানের শুরুতেই যেসকল নেতৃবৃন্দ যারা আর আমাদের মাঝে নেই তাদের প্রতি ১ মিনিট নিরবতা পালন পালন করে শোক জ্ঞাপন  ও যেসকল নেতৃবৃন্দ  অসুস্থ তাদের সুস্থ্যতায় প্রার্থনা করা হয়। 

অনুষ্ঠানে মন্দির কমিটির প্রতিনিধিরা তাদের নিজ মন্দিরের সমস্যাগুলো তুলে ধরে যা দ্রুতই সমাধানের আশ্বাসদিয়ে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ দুলাল চন্দ্র ঘোষ ও সম্পাদক বাবু গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে বলেন, সকল সদস্যাই সমাান হবে।  তবে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।  যদি আমরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকি তবে যে কেউ খুব সহজে আমাদের আঘাত করে ঘায়েল করতে পারবে আর যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি তবে কেউই আমাদের কোন ক্ষতি করতে পারবে না। 

মন্দির গুলোর নিরাত্তার জন্য পুলিশের পাশাপশি নিজস্ব সেচ্ছাসেবক বাহিনী তৈরী ও পূজা চলাকালীন অধুনিক শব্দ যন্ত্র (বক্স) বাজানোর উপর কিছু নির্দেশনা দেন এবং মন্দিরে যেন কোন মাদক সেবী প্রবেশ না করতে পারে সে দিকে নজর দেওয়ার নির্দেশনা দেন। 

এবছর জেলায় ৫টি পূজা মন্ডপে পূজা বেড়ে ১০৮টি মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে মা দূর্গার পূজা। 


keya