৯:৩৩ এএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার | | ১১ মুহররম ১৪৪০


‘ভাষা সংগ্রামের চেতনায় বাংলাদেশ অর্জিত হয়’

২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৮:৩২ পিএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : একুশের পদকপ্রাপ্ত ও আন্তর্জাতিক সমাজবিজ্ঞানী, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেছেন, বাঙালির ভাষা-সংস্কৃতির উপর আগ্রাসনের প্রতিবাদে বাঙালি জেগে উঠেছিল।  তার প্রতিবাদী ধারায় মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জিত হয়।  এই অর্জনের মহানায়ক ইতিহাসের বীরপুরুষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। 

তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, উচ্চ আদালতের বিচার প্রতিনিধিগণ বিচারের রায় বাংলার দিনে তা সকলের বোধগম্য হতো।  যদি তারা না করেন তাঁরা একুশের চেতনার পরিপন্থী।  মনে রাখতে হবে একুশের বইমেলা কোন আনুষ্ঠানিকতা বা বই বেচাকেনা হাট নয়, এই বইমেলা বাঙালি জাতিসত্তার বাতিঘর।  এর উদ্দেশ্যে হোক প্রযুক্তির অপব্যবহার করে নতুন প্রজন্মকে বইমুখী করা।    বৃহস্পতিবার  বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ডিসি হিলে ৯ দিনব্যাী একুশে বইমেলার ৩য় দিনের অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন। 

একুশ মেলা পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও জামালখান ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর প্রকৌশলী বিজয় কুমার চৌধুরী কিষাণ, মেলার সহযোগী প্রতিষ্ঠান ফারর্মিক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব ডাঃ আহমেদ রবিন ইস্পাহানী, মহিউদ্দিন মঈনুল আলম, নগর যুবলীগের সদস্য লিটন রায় চৌধুরী, মানবাধিকার সংগঠক ও সাবেক ছাত্রনেতা আবুল বশর, মোহরা এস কে কিউ গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক হাসিনা মমতাজ, ডা: আইরীন সুলতানা, মেলা পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব, নজরুল ইসলাম মোস্তাফিজ, প্রধান সমন্বয়কারী শওকত আলী সেলিম প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ভাষা শহীদদের স্মরণে সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।  বিকাল ৩টায় একক সঙ্গীতানুষ্ঠান পরিবেশন করেন বেতার ও টেলিভিশন শিল্পী রূপা বিশ্বাস, শিউলী মজুমদার, নূসরাত জাহান রিনী, ঋতু বড়ুয়া, সোমাইয়া ইসলাম রাইসা, সঞ্চিতা দে।  দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন চারুতা নৃত্যকলা একাডেমী।  একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন নিশাত হাসিনা শিরীন।  

শুক্রবার সকাল ৯টায় থেকে ডিসি হিল মেলা প্রাঙ্গনে শিশু কিশোর চিত্রাংকন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।  বিকেল ৫টায় একুশের মঞ্চে স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী ও বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।