৭:৪৭ এএম, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার | | ৫ রজব ১৪৪১




মানুষের দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা কত?

১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:০১ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম:  শরীরে তাপমাত্রা বাড়লে আমরা প্রথমেই ছুটে যাই থার্মোমিটার আনতে।  যদি দেখা যায় তাপমাত্রা ৯৮.৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট।  তাহলে আমরা আর এ নিয়ে মাথাব্যথা করি না। 

জ্বর মাপার সময় সাধারণত থার্মোমিটারে যে তাপমাত্রাকে (৯৮.৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট) আমরা স্বাভাবিক বলে ধরে নেই।   

স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘স্কুল অফ মেডিসিন’-এর সাম্প্রতিক গবেষণা জানিয়েছে, ১৬০ বছর বা তার কিছুটা বেশি সময় আগে আমাদের দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা যা ছিল, সেই উনিশ শতকের উষ্ণতা আমরা ধরে রাখতে পারিনি।  দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা কমে গিয়েছে ০.০৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ০.২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।  পুরুষ এবং নারী উভয়ের ক্ষেত্রেই তাপমাত্রা নেমেছে বলে জানা গেছে।  গত ২০০ বছরে সেই স্বাভাবিকতা নেমে পৌঁছেছে ৯৭.৫ ডিগ্রি ফারেনহাইটে।  কমেছে নারীদের দেহের তাপমাত্রাও।  তবে সেই হার পুরুষের তুলনায় সামান্য কম।  নারীদের শরীরের গড় স্বাভাবিক তাপমাত্রা এখন ৯৮ ডিগ্রি ফারেনহাইট। 

জুলে পার্সনেট, বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিনের অধ্যাপক এবং তার দল ১৯০ হাজার মানুষের ওপর পরীক্ষা করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।  গবেষকদের মতে, তাপমাত্রা কমে যাওয়ার কারণ হতে পারে মানুষের ওজন, জীবনযাত্রার অভ্যাস এবং উন্নত চিকিৎসার।  এ ছাড়া গবেষণা পত্র থেকে আরও জানা গেছে আমাদের দেহের গড় স্বাভাবিক তাপমাত্রার এই অবনমন হঠাৎই হয়নি।  তা ধাপে ধাপে নেমেছে।  মানুষের জন্ম-সময়ের নিরিখে একটি দশক থেকে পরবর্তী দশকে।  ধারাবাহিক ভাবে।  সেই ধারাবাহিকতায় কোনও ব্যাতিক্রম ঘটতে দেখিনি আমরা। 

শরীরে স্বাভাবিক তাপমাত্রা

শরীরের তাপমাত্রা সবার জন্য এক নয় এবং লিঙ্গ, বয়স এবং অন্যান্য কারণের ভিত্তিতে পরিবর্তিত হয়।  সাধারণ প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য, শরীরের তাপমাত্রা ৯৭ ডিগ্রি থেকে ৯৯ ডিগ্রি ফারেনহাইটের মধ্যে থাকতে পারে।  আবার শিশুদের ক্ষেত্রে ৯৭.৯ থেকে ১০০.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  এমনকি আমাদের শরীরে তাপমাত্রা সব সময় এক থাকে না।  দিনের বেলা আপনার শরীরে তাপমাত্রায় পরিবর্তন আনতে পারে এমন কয়েকটি জিনিস- শরীর চর্চা, দিনের সময়, কেমন ধরণের খাওয়া-দাওয়া হল, এমনকী নারীদের ক্ষেত্রে ঋতুর সময়ও তাপমাত্রার পরিবর্তন হতে পারে।