১০:৩০ পিএম, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | | ৮ রবিউস সানি ১৪৪১




মোরেলগঞ্জের মেধাবি ছাত্র তৌফিকের কৃতিত্ব

২১ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৫৪ এএম | নকিব


এম.পলাশ শরীফ,বাগেরহাট: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ পৌর সদরের ছেলে বি.এম.ইমরোজ হোসেন তৌফিক। 

জীবনের প্রতিটি পরীক্ষায় মেধার স্বাক্ষর রাখায় এলাকায় ”মেধাবী ছাত্র” হিসেবে পরিচিত।  স্কুল ও কলেজের গন্ডি পেরিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায় ভর্তি পরীক্ষায়ও মেধার স্ফুরন ঘটিয়েছে। 

এ বারের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় ভর্তি পরীক্ষায় সে একইসাথে মেডিকেল কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), খুলনা প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ে ( কুয়েটে) জাতীয়  মেধায় স্থান লাভ করেছে। 

তার এ সাফল্য তার বাবা-মা, শিক্ষকবৃন্দ , তার (বেপারী) পরিবার সর্বোপরি মোরেলগঞ্জবাসীর মুখ উজ্জ্বল করেছে। 

 মেধাবী ছাত্র তৌফিক মোরেলগঞ্জ বারইখালী মিয়া ফুয়াদ ইন্টার ন্যাশনাল স্কুল থেকে শিক্ষা জীবন শুরু করে ১২৩ নং মোরেলগঞ্জ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে  পিএসসি, এ.সি.লাহা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি ও এসএসসি এবং খুলনা সরকারি এম.এম. সিটি কলেজ থেকে এইচ এসএসসি পাশ করে। 

মেডিকেলে চান্স পাওয়ার পর সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক ইউনিটে (বিজ্ঞান) ৮৮ হাজার পরীক্ষার্থীর মধ্যে মেধা তালিকায় ৯৩ তম স্থান দখল করে।  সাফল্যের ধারাবাহিকতায় সে বুয়েট ভর্তি পরীক্ষায় ১২ হাজার ১৩৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৫তম এবং  কুয়েটে ১০ হাজার ৬৬ জনের মধ্যে ৩য় স্থান অধিকার করে।   তবে তার স্বপ্ন  সে বাংলাদেশের শ্রেষ্ট বিদ্যাপীঠ বুয়েটেই পড়বে। 

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বিএম তৌফিকের পরামর্শ, “অন্য কাউকে বন্ধু না বানিয়ে পাঠ্যবইকে বন্ধু বানাও।  স্বীয় অধ্যবসায়,সৃষ্টি কর্তার রহমত ও সৃষ্টজীবের দোয়া থাকলে সাফল্য অবধারিত। ”

জানা গেছে, সে মোরেলগঞ্জ পৌর সভার ২নং ওয়ার্ড বারইখালীর বাসিন্দা; এবং ‘সৃষ্ঠির সেবায়, সমাজিক খেদমতের অঙ্গীকার’ নিয়ে প্রতিষ্ঠিত  সামাজিক সেবা সংগঠন "বেপারী ফাউন্ডেশন" মোরেলগঞ্জ এর প্রতিষ্ঠিাতা সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক এবং অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মাষ্টার মো.এনামুল হক বেপারীর একমাত্র ছেলে।  তৌফিক জানান, তার ইচ্ছা আল্লাহ তার পূরন করেছেন।  ভবিষ্যতে সে যাতে একজন সেরা প্রকৌশলী হয়ে দেশের সেবা করতে পারে এ জন্য সবার দোয়া প্রার্থী।  তার এ কৃতিত্বপূর্ন ফলাফলের জন্য সে সকল বিদ্যাপীঠের শিক্ষকবৃন্দের প্রতি চিরকৃতজ্ঞ।  


keya