৯:০৫ এএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রোববার | | ৯ সফর ১৪৪২




মেহেদীর রং না মুছতেই স্বামীর হাতে নববধূ খুন!

১১ আগস্ট ২০২০, ০৯:৪৩ এএম | নকিব


আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় স্বামীর ছুরিকাঘাতে আহত মরিয়ম বেগম (২৩) নামে এক নববধূ’র মৃত্যু হয়েছে। 

সে উপজেলার চন্দ্রপুর ইউনিয়নের উত্তর বালাপাড়া গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে সোহাগ মিয়ার স্ত্রী এবং একই উপজেলার গোড়ল ইউনিয়নের মালগাড়া গ্রামের মৃত মোস্তফার মেয়ে। 

সোমবার (১০ আগস্ট) সকালে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

স্থানীয়রা জানান, প্রায় সাত মাস আগে সোহাগের সঙ্গে মরিয়মের বিয়ে হয়।  বিয়ের পর থেকে সোহাগ যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন ।  গত ৪ আগস্ট মরিয়মকে ভরণ-পোষণের খরচ ছাড়া বাড়িতে রেখে ঢাকায় যাওয়ার প্রস্তুতি নেন স্বামী সোহাগ।  এতে বিরোধিতা করেন মরিয়ম।  এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। 

এক পর্যায়ে মরিয়মকে ছুরিকাঘাত করে জখম করেন সোহাগ।  সে সময় নববধূর চিৎকারে স্থানীয়রা সোহাগকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে এবং আশঙ্কাজনক অবস্থায় মরিয়মকে উদ্ধার করে প্রথমে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রমেক হাসপাতালে ভর্তি করে।  সেখানে ছয়দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে হেরে যান নববধূ মরিয়ম।  সোমবার সকালে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।  
গত ৪ আগস্ট ঘাতক স্বামী সোহাগসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন মরিয়মের মা আজিমন নেছা।  সেই মামলায় সোহাগকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। 

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ  (ওসি) আরজু মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, ঘাতক সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  অন্য আসামিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 


keya