৭:৫৪ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




শিশু রাইফার মৃত্যু

রাউজানে কর্মরত সাংবাদিকদের কালোব্যাজ ধারণ ও প্রতিবাদ সভা

১১ জুলাই ২০১৮, ১০:১২ পিএম | সাদি


প্রদীপ শীল, রাউজান প্রতিনিধি: বিতর্কিত ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসা ও অবহেলায় সাংবাদিক রুবেল খানের মেয়ে রাইফা হত্যার প্রতিবাদে কালোব্যাচ ধারণ ও প্রতিবাদ সভা করেছে রাউজানে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ। 

বুধবার (১১ জুলাই) বিকালে রাউজান সদর মুন্সিরঘাটার ফুলকলিতে এ কালোব্যাচ ধারণ ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  দৈনিক সমকাল ও সুপ্রভাত বাংলাদেশ পত্রিকার রাউজান প্রতিনিধি এম শফিউল আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন দৈনিক আজাদীর রাউজান প্রতিনিধি মীর আসলাম, বাংলাদেশ প্রতিদিন ও বীর চট্টগ্রাম মঞ্চের রাউজান প্রতিনিধি প্রদীপ শীল, দৈনিক সাঙ্গু ও বাংলাদেশ সময়ের রাউজান প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর নেওয়াজ, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার রাউজান প্রতিনিধি নেজাম উদ্দিন রানা, দৈনিক মানবকন্ঠ পত্রিকার রাউজান প্রতিনিধি এম কামাল উদ্দিন, দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার রাউজান প্রতিনিধি মো. হাবিবুর রহমান। 

বিতর্কিত, অনুমোদনহীন বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালের সরকারের দু’টি তদন্ত কমিটি এবং সর্বশেষ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ওষুধ প্রশাসনের সহযোগিতায় র্র‌্যাবের অভিযানে যে অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা ও অপচিকিৎসার চিত্র উঠে এসেছে তাতে স্তম্ভিত সর্বস্তরের মানুষ। 

গত ২৯ জুন গলা ব্যথার চিকিৎসা নিতে গিয়ে চিকিৎসকদের অবহেলায় প্রাণ হারায় আড়াই বছরের শিশু রাইফা খান।  এর প্রতিবাদে সাংবাদিকসহ চট্টগ্রামের সর্বস্তরের পেশাজীবীরা হাসপাতালটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠে।  এ দাবির প্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গঠিত তদন্ত কমিটি সরেজমিন তদন্ত শেষে ১১টি অনিয়ম ও ক্রটি চিহ্নিত করে।  গত ৪ জুলাই ১৫ দিনের সময় দিয়ে ম্যাক্সকে শোকজ করা হয়। 

৫ জুলাই সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনেও হাসপাতালটিতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, ডিপ্লোমাধারী নার্সের চরম সঙ্কট এবং চিকিৎসকদের অবহেলার ভয়াবহ চিত্র উঠে আসে।  দু’টি তদন্ত কমিটি ম্যাক্সের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে। 

সর্বশেষ গত রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের প্রতিনিধি ও ওষুধ প্রশাসনের প্রতিনিধির উপস্থিতিতে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে অভিযান চালায়।  অভিযানে হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে অনুমোদনহীন ওষুধ ও মেয়াদোত্তীর্ণ সার্জিক্যাল আইটেম পাওয়া যায়।  পরীক্ষা ছাড়াই প্যাথলজিক্যাল রিপোর্ট দেয়া ছাড়াও নানা অনিয়মের চিত্র পায় ভ্রাম্যমান আদালত। 



keya