৯:১০ পিএম, ২০ জুন ২০১৮, বুধবার | | ৬ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, আহত ৩

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৩:৫২ পিএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জড়িয়েছে রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কর্মীরা।  সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুঁলিশ ফাঁড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।  এঘটনায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের তিন কর্মী আহত হয়েছেন। 

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের পুঁলিশ ফাঁড়ির সামনে ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী অবস্থান করছিলেন।  এসময় বেরোবি ছাত্রলীগের বঙ্গবন্ধু হলের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মারুফ ভুঁইয়া স্পিডে মোটরবাইক নিয়ে যাচ্ছিলেন।  তখন রাসেল নামের এক শিক্ষার্থী তাকে আস্তে বাইক চালাতে বলেন।  এতে মারুফ ভুঁইয়া তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং মারতে তেড়ে আসেন বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।  রাসেল ও মারুফের মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারুফের সঙ্গে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী আদনান রাসেলকে মারতে আসেন।  এ সময় রাসেলের ঘুষিতে আদনানের নাক ফেটে যায়। 

ঘটনা জানাজানি হলে একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সভাপতি গ্রুপ ও সেক্রেটারি গ্রুপের কর্মীদের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়।  দুই গ্রুপের মাঝে প্রায় ঘণ্টাখানেক ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।  পরে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সেক্রেটারির যৌথ প্রচেষ্টা এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও সেক্রেটারি নোবেল শেখ জানান, ভুল বোঝাবুঝিকে কেন্দ্র করে ছোটদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।  এখানে দুই গ্রুপের কিছু হয়নি।  সভাপতি-সেক্রেটারির মধ্যে কিছু হয়নি বলে জানান তারা। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. ফরিদ-উল ইসলাম বলেন, ‘ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সামান্য সংঘর্ষ ঘটে।  প্রক্টরিয়াল বডি আসার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ’

বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির এস আই মহিব্বুল ইসলাম মুন বলেন, ‘পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।  বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ’