১০:০৬ এএম, ২৫ জুন ২০১৮, সোমবার | | ১১ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

রাজবাড়ীতে মহিলা দলের বিক্ষোভ, আইনজীবীদের মানববন্ধন

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৬:০৫ পিএম | সাদি


এম,মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় সাজা দেয়ার প্রতিবাদে ও তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে রাজবাড়ীতে বিক্ষাভ করেছে জেলা বিএনপির মহিলা দলের নেত্রীরা। 

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা শহরের মহিলা কলেজ সড়কে তারা এ বিক্ষোভ করে। 

বিক্ষোভে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মহিলা দলের নেত্রী কুমকুম নজরুল, অধ্যাপিকা ইয়াসমিন আক্তার, রাজিয়া বেগম, মমতাজ লতিফ, স্মৃতি ইসলাম সহ অনান্য নেত্রীবৃন্দ। 

এর আগে দুপুর ১২টার দিকে প্রেসক্লাব সংলগ্ন নিউ রয়েল টাস হোটেলের সামনে মানববন্ধন করে জাতীয়তাবাদি আইনজীবী দল। 

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন,জেলা বিএনপির সহ সভাপতি এ্যাডভোকেট এম এ গফুর,সহ সভাপতি এ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান লাল, সহ সভাপতি এ্যাডভোকেট লিয়াকত আলী বাবু,আইন বিষয়ক সম্পাদক আহাদুল ইসলাম রতন, উপদেষ্টা এডভোকেট এ এন এম শহিদুল ইসলাম। 

এদিকে খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে করে জানমালের নিরাপত্তা ও বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা যেন কোন নাশকতা সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য রাজবাড়ী শহরে সকাল থেকে সাড়াদিন সতর্ক অবস্থায় দেখা গেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের।  জেলা বিএনপি কার্যালয়সহ বিভিন্নস্থানে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের অবস্থান রয়েছে। 

আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম সাংবাদিকদের কাছে বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় শুধু মাত্র হয়রানি ও রাজনীতি থেকে দুরে রাখতে এ রায় দেওয়া হয়েছে।  কেন্দ্রেীয় নির্দেশে তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসুচী পালন করতে চাইলেও পুলিশি বাঁধায় তা সম্ভব হচ্ছে না।  বিগত কয়েক দিনে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আফসার আলী সরদার,পৌর বিএনপির সম্পাদক অধ্যাপক এহসানুল করিম চৌধুরীসহ দলের বহু নেতাকর্মীকে পুলিশ আটক করেছে।  নেতাকর্মীদের বাড়ীতে প্রতি রাতের অন্ধকারে হানা দিচ্ছে পুলিশ। 

মিথ্যা মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার এ রায়কে কেন্দ্র করে রাজবাড়ীর যে সকল নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের অবিলম্বে মুক্তি দাবী করছি। 

তিনি আরো বলেন, রাজবাড়ীর নিজ বাড়িতে আসার খবর শুনে পুলিশ সারারাত বাড়ী ঘিরে রেখেছিলো।  তাই পুলিশকে উদ্দ্যেশে করে বলেন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে তাদের অধিকার আছে সভা, সেমিনার ও কর্মসূচী পালন করার কিন্তু পুলিশ তাতে বাঁধা দিচ্ছে।  এ সময় তাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি বাঁধা না দিয়ে সহযোগীতা করার আহব্বান জানান।