১২:২২ এএম, ১৯ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার | | ৮ সফর ১৪৪০


রাজবাড়ী আলাদিপুরে ২২দিনব্যাপী মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত বিজয় মেলা উদ্বোধন

১১ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:১৮ পিএম | সাদি


এম, মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ী সদর উপজেলার আলীপুর ইউনিয়নের আলাদিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে শুরু হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত ২১তম বিজয় মেলা।  ১১ জানুয়ারী সন্ধ্যায় প্রধান অতিথি হিসেবে ২২দিন ব্যাপী মেলা বেলুল উড়িয়ে উদ্বোধন করেন নবনিযুক্ত শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী (কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ) আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী, এমপি। 

জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক এবং বিজয় মেলা উদযাপন কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম নওয়াব আলীর সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী, জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুল জব্বার, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(ক্রাইম) মোঃ আছাদুজ্জামান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডঃ এম.এ খালেক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ও খানখানাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ রেজাউল করিম লাল, জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ নাজমুল হাসান মিন্টুও আলাদিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল বাশার প্রামানিক। 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিজয় মেলা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও আলীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শওকত হাসান।  অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন আলীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস.এম জাহিদুল হাসান বক্কার এবং মেলা উদযাপন কমিটির সদস্য আয়ুব আলী শেখ। 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী (কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ) আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী এমপি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের স্মৃতিকে স্মরণীয় করে রাখার প্রত্যয়ে দীর্ঘ বছর যাবৎ ধারাবাহিকভাবে এই বিজয় মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে-যা অত্যন্ত গর্বের।  এ জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। 

তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মন্ত্রীত্ব দিয়ে রাজবাড়ীবাসীকে সম্মানিত করেছেন।  আমাকে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের দায়িত্ব দেওয়ায় আমি অত্যন্ত খুশী হয়েছি।  কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমেই দেশের বেকার সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।  চীন-জাপানসহ উন্নত দেশগুলো কারিগরি শিক্ষাকে প্রাধান্য দিয়েই এগিয়ে গেছে। 

অল্প লেখাপড়া করেও কেউ কারিগরি জ্ঞান অর্জন করলে সুন্দরভাবে জীবিকা নির্বাহ করতে পারে।  তাই রাজবাড়ীতে একটি পূর্নাঙ্গ সরকারী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট গড়ে তোলা হবে।  আলাদিপুরের এই বিজয় মেলা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  এখান থেকে নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের চেতনা উদ্বুদ্ধ হবে বলে আমি আশাবাদী।  মেলায় যাতে কোন প্রকার অশ্লীলতা না হয় সেদিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে। 


keya