১০:৫২ পিএম, ২২ জুন ২০১৮, শুক্রবার | | ৮ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

রাবি শিক্ষক হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি

০৮ মে ২০১৮, ০৫:৩৩ পিএম | মুন্না


মেশকাত মিশু, রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক ড.এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যা মামলার রায়ে ২ জনের ফাঁসি ও ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছে আদালত। একইসঙ্গে প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার দুপুরে হত্যাকাণ্ডের দুই বছরের মাথায় চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায় ঘোষণা করেন দ্রুত বিচার ট্রাইবুনাল এর বিচারপতি শিরীন কবিতা আখতার।  শরিফুল ইসলাম ছাড়া বাকি সব আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।  ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো, বগুড়ার শিবগঞ্জের মাসকাওয়াত হাসান ওরফে আব্দুল্লাহ ওরফে সাকিব ও বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলাম। 

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়েছে, নীলফামারির মিয়াপাড়ার রহমত উল্লাহ, রাজশাহী মহানগরীর নারিকেলবাড়িয়া এলাকার আবদুস সাত্তার ও তার ছেলে রিপন আলী, কিন্তু এ হত্যা কান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী জঙ্গি শরিফুল এখনও পলাতক রয়েছ বলে জানা যায়। 

চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার অভিযুক্ত ৮ আসামির মধ্যে খায়রুল ইসলাম বাঁধন, নজরুল ইসলাম ওরফে হাসান ওরফে বাইক হাসান ও তারেক হাসান ওরফে নিলু ওরফে ওসমান আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।  রাজশাহীর দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু জানান, মামলায় মোট ৩২ জন সাক্ষী ছিলেন।  তবে ২৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে।  তিনি আরো জানান, গত বছরের  ১২ সেপ্টেম্বর থেকে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।  যথাযথ প্রক্রিয়া শেষে রায় ঘোষণার জন্য এদিন ধার্য করা হয়।  এদিকে এ রায়ে তার পরিবারের সদস্য ও তার সহকর্মীসহ শিক্ষার্থীরা সন্তোষ প্রকাশ করেছে।  তবে দ্রুত রায়ের বাস্তবায়ন দেখতে চাই তারা। 

উল্লেখ্য, গত ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল সকালে নগরীর শালবাগান এলাকায় নিজের বাড়ি থেকে মাত্র ৫০ গজ দূরে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করা হয় অধ্যাপক ড. এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে।  পরদিন নিহতের ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে বোয়ালিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।  পরে গত ২০ আগস্ট মামলাটি মহানগর দায়রা জজ আদালত থেকে দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়।