২:১৬ পিএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রোববার | | ৭ রবিউস সানি ১৪৪০




নাজিরপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার আল্লামা নূরী

রাসুলে করিম (স:) পৃথিবীর ভূপৃষ্টে শুভাগমন করেছিলেন আল্লাহর দ্বীনকে বিজয়ী করার জন্য

২৮ নভেম্বর ২০১৭, ০৫:১৫ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : বায়তুশ শরফ মজলিসুল ওলামা বাংলাদেশের মহাসচিব বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী বলেছেন, রাসুলে করিম (স:) হচ্ছেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব এবং মানবজীবনের সকল অঙ্গনে সর্বোৎকৃষ্ট আদর্শ। 

তিনি পৃথিবীর ভু-পৃষ্টে শুভাগমন করেছিলেন মানব রচিত সকল মতাদর্শের উপর আল্লাহর দ্বীন ইসলামকে বিজয়ী করার জন্য।  তাঁর চারিত্রিক মাদুর্যতা, আমানতদারী ও সহ মর্মিতার আচরণে বিমোহিত হয়ে আরবের বর্বর জাতিরাও আল আমীন উপাদিতে ভূষিত করেছিলেন।  তাই রাসুলের (স:) সুমহান আদর্শের অনুকরণেই রয়েছে বিশ্বসমাজে শান্তি ও নিরাপত্তার গ্রান্টি। 

মাওলানা নূরী আরো বলেন, আজ মুসলিম জাতির উপর কোরআন হাদীস ও নবী আদর্শের শিক্ষার বিপরীতে পাশ্চাত্যের সেকুলার শিক্ষা ব্যবস্থা চাপিয়ে দেয়ার ফলে জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস, খুন ধর্ষণ দিন দিন বৃষ্টি পাচ্ছে।  তিনি আরো বলেন মানুষের মাঝে কোন ধরনের বর্ণের বৈষম্য ও আভিজাত্যের ভেদাভেদ নেই।  কারণ পৃথিবীর সকল ধর্মও শ্রেণীর মানুষেরা হচ্ছে এক আল্লাহর দাস। 

তিনি বলেন, তাওহীদের এই শিক্ষা গ্রহণ করে রাসুলের (স:) আদর্শকে প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শান্তি, সাম্য ও নিরাপত্তার বাসস্থান তৈরী করতে হবে।  মাওলানা নূরী আরো বলেন, মানবতার  নবী রাসলে করিম (স:) এর আদর্শ হচ্ছে সকল ধর্মের মানুষের মাঝে ভালবাসা ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ সৃষ্টি করা, সামাজিক জীবনের একটি অনবদ্য অংশ।  তাই হীনমণ্যতা ও হিংসা বিদ্ধেষ পরিহার করে শান্তিময় সামাজিক জীবনযাপনের জন্য রাসুলের (স:) আদর্শ প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। 

২৮ শে নভেম্বর ২০১৭ইং রাতে ফেনী জেলার সোনাগাজী নাজিরপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলে তাফসীর করতে গিয়ে আল্লামা নূরী উপরোক্ত কথা বলেন।  মাদরাসা প্রতিষ্ঠাতা প্রবীন আলেমেদ্বীন অধ্যক্ষ মাওলানা রুহুল আমীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন আর্ন্তজাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মাওলানা লুৎফুর রহমান আল আজহারী। 

বিশেষ আলোচনক ছিলেন সুফিয়া নুরিয়া ফাযিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা রেজাউল করীম।  আলোচনা পেশ করেন  মাদরাসার সুপার মাওলানা মোহাম্মদ আবু তাহের, মাদরাসতুল ওসমান এর নায়েবে মোহতামিম মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল ফাত্তাহ, নোয়াবপুর জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুন্নবী প্রমুখ।