৮:৪৯ এএম, ২৭ মার্চ ২০১৯, বুধবার | | ২০ রজব ১৪৪০




রায়ে আ.লীগের আঁতে ঘা লেগেছে : খন্দকার মাহবুব

২৫ আগস্ট ২০১৭, ০৪:২৪ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কমঃ বিচারকদের অপসারণ-সংক্রান্ত ষোড়শ সংশোধনীর আপিল বিভাগের রায়ে ‘আওয়ামী লীগের গাত্রদাহ’ শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন। 

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায় ইতিহাসে একটি বিরল ঘটনা।  এতে আওয়ামী লীগের গাত্রদাহ শুরু হয়েছে।  আঁতে ঘা লেগেছে।  কারণ, এ রায়ে আওয়ামী লীগ সরকারের দুর্নীতি এবং ব্যর্থতা তুলে ধরা হয়েছে। ’

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন। 

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘তাঁরা (আওয়ামী লীগ) রাজপথে নেমেছে।  তাঁরা বুঝিয়ে দিচ্ছে যে তাঁরা কিন্তু আদালতের দরজায় লাথি মারতে পারেন।  কিন্তু ন্যায়বিচারের শেষ আশ্রয়স্থল আদালতের প্রতি যদি আঘাত আসে, তা প্রতিহতের শক্তি বিএনপির আছে। ’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘বিচারব্যবস্থা যদি নষ্ট হয়ে যায়, মানুষের সুবিচার পাওয়ার শেষ আশ্রয়স্থল আর কোথায় হবে? আওয়ামী লীগ যে বক্তব্য দিচ্ছে, তার একশ ভাগের এক ভাগ যদি বিএনপি দিত, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে আদালত অবমাননার মামলা হতো। ’

দ্রুতই নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার দেওয়ার দাবি জানিয়ে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আজ পর্যন্ত কোনো ক্ষমতাসীনদের হাতে নির্বাচন সুষ্ঠু হয় নাই, বাংলাদেশের মাটিতে আর কোনো দিন ৫ জানুয়ারি মার্কা নির্বাচন হতে পারবে না। ’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আপনি সব সময় ক্ষমতায় থাকবেন আর বিএনপি সেটা বসে বসে দেখবে? খালেদা জিয়া দ্রুতই দেশে আসবে। 

নির্বাচন হবে খালেদা জিয়ার পরামর্শে একটি সহায়ক সরকারের মাধ্যমে।  নির্বাচন কমিশনের দক্ষতা ও নিরপেক্ষতা আমরা বিশ্বাস করি না।  সরকার যদি নিরপেক্ষ না হয়, তাহলে নির্বাচন কমিশনও নিরপেক্ষ হতে পারে না। ’

সহায়ক সরকার দিয়েই নির্বাচন দিতে হবে মন্তব্য করে এই সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ১৬ কোটি জনগণ রাজপথে নামবে বলেও উল্লেখ করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান। 


keya