৯:১৭ পিএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪০




লাইসেন্স থাকলে ফুল : না থাকলে মামলা!

০৮ আগস্ট ২০১৮, ০৮:১২ পিএম | মাসুম


রাজু কুমার দে, মিরসরাই প্রতিনিধি: যদি গাড়ির সঠিক কাগজপত্র ও চালকের লাইসেন্স থাকে আপনি পাবেন ফুল।  আর যদি না থাকে তাহলে আপনার দূভাগ্য।  আপনাকে মামলায় জড়াতে হবে।  এমনটাই উদ্যোগ নিয়েছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। 

পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে বুধবার জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের জোরারগঞ্জ অংশে চৌকি বসিয়ে মোটর সাইকেলের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও চালকের লাইসেন্স পরীক্ষা করে। 

এসময় যাদের কাগজপত্র ও চালকের লাইসেন্স রয়েছে তাদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।  আর যাদের নেই তাদের মামলা দেয়া হয়। 

জোরারগঞ্জ থানা সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দিন ভর জোরারগঞ্জ থানার আওতাধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে ৪টি তল্লাসী চৌকি বসায় জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।  এসময় ২৪টি মোটর সাইকেলকে মামলা দেয়া হয়। 

আটক করা হয় ১০টি মোটর সাইকেল।  যাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও লাইসেন্স রয়েছে তাদের ফুল দিয়ে বরণ করা হয়। 

জোরারগঞ্জ থানার জেষ্ঠ্য উপ-পরিদর্শক বিপুল চন্দ্র দেবনাথ জানান, বুধবার বারইয়ারহাট পৌর সদরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চেক পোষ্ট বসায় জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।  চেক পোষ্টের নেতৃত্বে ছিল এএসআই ইমরান পাটোয়ারী। 

এসময় জোরারগঞ্জ থানার এএসআই ইমরান পাটোয়ারী নেতৃত্বে ১৪টি মোটর সাইকেলকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও চালকের লাইন্সেস না থাকায় মামলা দেয়া হয়।  এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে আরো ৩টি চেক পোষ্ট বসায় জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। 

এসময় ৩টি চেক পোষ্টে ১০টি মোটর সাইকেলকে মামলা দেয়া হয়। 

জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহিদুল কবির জানান, যে সকল মোটর সাইকেলের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও চালকের লাইসেন্স নেই সেই সকল গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

এই অভিযানে কাউকে হয়রানী করা হচ্ছে না।  এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।  প্রয়োজনীয় কাগজ থাকলে পাবে ফুল না থাকলে পাবে মামলা।