৭:২৭ এএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | | ২৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৮

South Asian College

শীতে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে

০১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০:২৯ এএম | এন এ খোকন


এসএনএন২৪.কম : শীত কালে অ্যাজমা, বাতের সমস্যা বাড়ার মতোই বেড়ে যায় হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও।  এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, পারদ নামতে থাকার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়তে থাকে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি।  গরমকালের তুলনায় শীতকালে হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা বেড়ে যায় বলে জানান সুইডেনের লান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক। 

এই সমীক্ষার মুখ্য গবেষক মোমন এ মোহাম্মদ জানান, তাপমাত্রা যখন ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের উপরে থাকে তখন হৃগরোগে আক্রান্ত হওয়ার যে ঝুঁকি, তাপমাত্রা শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে সেই ঝুঁকি চারগুন বেড়ে যায়।  আবার বাতাসের গতিবেগ, আপেক্ষিক আর্দ্রতা বাড়তে থাকলেও হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়তে থাকে।  প্রতি মৌসুমেই তাই কম, বেশি বাড়তে-কমতে থাকে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি।  গরম কালের তুলনায় বর্ষাকালে হৃদরোগের ঝুঁকি বেশি থাকে।  তবে এই ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি বাড়ে শীত কালে। 

শীতের সঙ্গে মানিয়ে নিতে শরীরের রক্তনালী সঙ্কুচিত হয়।  যা ত্বকের তাপমাত্রা কমিয়ে ধমনীতে রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়।  এর ফলে কাঁপুনি, মেটাবলিক রেট বেড়ে যাওয়া, এমনকি হার্ট অ্যাটাকের সমস্যাও হতে পারে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা।  মহম্মদ বলেন, ‘বেশির ভাগ সুস্থ মানুষই এই পরিবর্তনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেন, সহ্যও করতে পারেন।  কিন্তু যাদের করোনারি আর্টারিতে কোলেস্টেরল বা ফ্যাট জমার প্রবণতা থাকে তাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায় এই সময়।  শীতকালে শ্বাসনালীর সংক্রামন ও ইনফ্লুয়েঞ্জাও হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।  আবার এই সময় ঠান্ডা আবহাওয়ার কারণে শরীরচর্চা ও পরিশ্রমও কম হয়।  যার প্রভাবেও বেড়ে যায় হৃদরোগের সম্ভাবনা। ’

মোট দুই লাখ ৮০ হাজার রোগীকে নিয়ে করা এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে বার্সেলোনার ইউরোপীয়ান সোসাইটি অব কার্ডিওলজি কংগ্রেসে।