২:৩০ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার | | ২১ সফর ১৪৪১




শ্রীপুরে পতিতাসহ ৮খদ্দেরকে পুলিশে দিলো ইউপি সদস্য

১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:২০ পিএম | নকিব


আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের শ্রীপুরে স্থানীয়দের সহায়তায় পতিতাসহ ৮খদ্দেরকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে ইউপি সদস্য।  

১৮ সেপ্টেম্বর বুধবার উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের জৈনা বাজার এলাকার ঢালীপাড়া নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।  

জানা যায়, সকাল ১১টায় একটি বাড়ীতে অনৈতিক কাজ হচ্ছে এমন খবরে তেলিহাটি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য  তারেক হাসান বাচ্চু স্থানীয়দের সহযোগিতায় আছিয়ার বাড়িতে যায়।  এসময় পতিতা ও খদ্দের সহ আছিয়াকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়।  

আটক হওয়া ব্যক্তিরা হলো- পতিতা সর্দার শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের আবদার ঢালীপাড়া গ্রামের কোরবান আলীর স্ত্রী আছিয়া খাতুন (৪০), ও তার সহযোগী অজ্ঞাত (২০) বয়সী এক পতিতা।  মানিকগঞ্জের দৌলতপুর থানার সেলিম মিয়ার ছেলে মহর আলী (২১), একই এলাকার মানিক শেখের ছেলে আশরাফুল (২২), সিরাজ মিয়ার ছেলে  মনির (২০), টাঙ্গাইলের সখিপুর থানার কালমেঘা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে আল-আমিন (২০), শ্রীপুর উপজেলার বাঁশবাড়ি এলাকার শফিউদ্দিনের ছেলে আশিক মিয়া (১৯) একই এলাকার  হেলাল উদ্দিনের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন (১৯)।  

তেলিহাটি  ইউপি সদস্য তারেক হাসান বাচ্চু জানান, আছিয়া খাতুন দীর্ঘদিন যাবৎ নিজের বাড়িতে দেহ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।  একাধিকবার স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন তাকে আটক করার পর মামলা দিয়ে কারাগারে প্রেরণ করলেও কিছুদিন পর জামিনে মুক্ত হয়ে পূনরায সে় দেহ ব্যবসায় জড়িয়ে যায়।  এ ঘটনার পর স্থানীয়রা ক্ষুব্ধ প্রকাশ করে বিক্ষোব মিছিল করে।  এসময় আছিয়ার এক দালাল কাদিরকেও গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন বলেও জানান তিনি।  

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল্লাহ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল হতে পতিতাসহ ৮জনকে আটক করা হয়েছে।  উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে পরবর্তী আইনী প্রক্রিয়া গ্রহন করা হবে।  

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান,  আটক হওয়া ব্যক্তিরা অনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িত থাকায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হবে।