১২:৩৩ এএম, ২৩ নভেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | | ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচ বানাল হাথুরুসিংহকে

০৯ নভেম্বর ২০১৭, ১০:২৮ পিএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : অবশেষে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই বিদায় নিচ্ছেন মাশরাফিদের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।  নিজ দেশ অর্থাৎ শ্রীলঙ্কার জাতীয় দলের কোচের দায়িত্বও ইতোমধ্যে প্রায় চূড়ান্ত করেছে ফেলেছেন তিনি। 

এরই মধ্যে নিজের পদত্যাগের কথা জানিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিবি) পদত্যাগপত্রও দিয়েছেন লঙ্কান এই কোচ।  

এদিকে চলতি বছরের জুনে শ্রীলঙ্কার জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব ছেড়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান গ্রায়াম ফোর্ড।  ফলে গত কয়েক মাস ধরে অন্তর্বর্তী কোচের দায়িত্ব পালন করছেন নিক পোথাস। 

বর্তমানে ভারত সফরে থাকা শ্রীলঙ্কা দলের সঙ্গে প্রধান কোচ হিসেবে নতুন অধ্যায়ের সূচনা করতে পারেন হাথুরুসিংহে। 

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি) ইতোমধ্যে হাথুরুর প্রধান কোচ হওয়ার বিষয়টি এক প্রকার চূড়ান্ত করে ফেলেছে। 

বোর্ডের এক নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে চান্দিমাল-ম্যাথুসদের প্রধান কোচের দায়িত্ব গ্রহণ করবেন হাথুরুসিংহে।  চাইলে আগেভাগে দলের সঙ্গে যোগও দিতে পারেন তিনি। 

উল্লেখ্য, হাথুরুসিংহকে নিজ দেশের জাতীয় দলের প্রধান কোচ বানানোর জন্য অনেকদিন ধরেই তোড়জোর চালাচ্ছিল এসএলসি।  গেল মার্চে শ্রীলঙ্কার মাটিতে বাংলাদেশের অসাধারণ পারফরম্যান্সের পর হাথুরুর বিষয়ে আরও বেশি মনোযোগী হয়ে উঠে লঙ্কান বোর্ড।  ইতোমধ্যে খণ্ডকালীন বাংলাদেশের ব্যাটিং পরামর্শকের দায়িত্বে থাকা থিলান সামারাভিরাকেও ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। 

সামারাভিরার সঙ্গে হাথুরুর সম্পর্কটা নেহায়েত বন্ধুত্বের।  ফলে হাথুরুর সঙ্গে সামারাভিরার ভালো বোঝাপড়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।  তবে প্রধান কোচ হিসেবে লঙ্কান শিবিরে হাথুরু কতদিন টিকতে পারবে সেটিও দেখার বিষয়।  কারণ অতীতেও একবার স্বদেশি হাথুরুকে সহকারী কোচ নিয়োগ দিয়ে কিছুদিন পরই তাকে বাজেভাবে বরখাস্ত করেছিল দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।  নিশ্চয় সে স্মৃতি হাথুরুর কাছে সুখকর নয়।