১:২৭ পিএম, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার | | ২২ রমজান ১৪৪০




শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:১৮ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : দেশের শেয়ারবাজারে বড় দরপতন হয়েছে।  প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন ৩০০ কোটি টাকার নিচে নেমে এসেছে।  বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দরই পড়ে গেছে। 

বাজারে টানা দরপতনের মধ্যে সোমবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানিয়েছিলেন, বাজার বর্তমানে ভালো অবস্থানে আছে।  অর্থমন্ত্রীর এমন দাবির পর মঙ্গলবার বড় দরপতন হলো। 

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) ডিএসই’র প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬৩ পয়েন্ট কমেছে।  শতকরা হিসাবে যা ১ দশমিক ১৮ শতাংশ। 

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই কমেছে ১৮৫ পয়েন্ট।  এদিন ডিএসইতে ২৯৮ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।  সিএসইতে হয়েছে ১২ কোটি ৭১ লা টাকা।  

এর আগে সোমবার চলমান বাজার পরিস্থিতি নিয়ে সোমবার পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক ‘জরুরি বৈঠক’ শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘শেয়ারবাজারের সূচকের পতনেরর পিছনে কেউ জড়িত থাকতে পারে।  বাজারের পতনে জড়িত  যেই থাকুক তাকে খুঁজে বের করা হবে।  জড়িতদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। ’

বাজার বর্তমানে ভালো অবস্থানে আছে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মনে করি, এ মুহূর্তে বাজার পরিস্থিতি খারাপ নয়।  এখন মূল্য আয় অনুপাত (পিই) বেশ কম; ১৫ থেকে ২০ এর মধ্যে আছে।  একসময় মূল্য আয় অনুপাত ৯০ হয়ে গিয়েছিল। ’

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, মঙ্গলবারর ডিএসইএক্স ডিএসইএক্স ৬২ দশমিক ৮৭ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ২৬০ দশমিক ৮৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।  ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১৫ দশমিক ৮০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ২১৫ দশমিক ৪১ পয়েন্টে।  আর ডিএসই-৩০ সূচক ২০ দশমিক ২০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৮৭২ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে। 

ঢাকার পুঁজিবাজারে লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩৪২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড।  এর মধ্যে দর বেড়েছে মাত্র ৩৪টির, কমেছে ২৬৭টির।  আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১টি কোম্পানির শেয়ার দর। 

অন্যদিকে সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৪১টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড।  এর মধ্যে দর বেড়েছে মাত্র ৩৬টির, কমেছে ১৮৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির দর। 

দিকে দরপতনের প্রতিবাদে মঙ্গলবারও মতিঝিলে ডিএসইর সামনে বিক্ষোভ করেছে ছোট বিনিয়োগকারীরা।  এ সময় তারা বিএসইসির চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে শ্লোগান দেন। 

প্রসঙ্গত, গত ৩ মাস ধরে ধারাবাহিকভাবে শেয়ারবাজারে সূচক কমে আসছে।  গত ২৪ জানুয়ারি ডিএসইর সাধারণ সূচক ৫৯৫০ পয়েন্ট থাকলেও ২১ এপ্রিল পর্যন্ত তা কমে ৫৩২৪ পয়েন্টে নেমে এসেছে।  তিন মাসে বাজার সূচক হারিয়েছে প্রায় ৬২৬ পয়েন্ট বা ১০.৫২ শতাংশ। 

এছাড়া ৪ লাখ ১৯ হাজার ৯৮৮ কোটি টাকার বাজার মূলধন নেমে এসেছে ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৩৮৩ কোটি টাকায়।