৩:৪৫ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার | | ৬ সফর ১৪৪০


শায়েস্তাগঞ্জে এখনও শিশু ইতি হত্যা রহস্যের জট খুলেনি

০৮ আগস্ট ২০১৮, ০৭:৫৪ এএম | জাহিদ


আখলাছ আহমেদ প্রিয়, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে শিশু ইতি আক্তার (৬) নির্মম হত্যাকান্ডের জট দুই সপ্তাহেও উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।  এরই মাঝে বদল করা হয়েছে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।  হত্যাকান্ডটি নিয়ে এলাকায় এখনো চলছে তোলপাড়। 

অনেকে ধারণা করছেন, পরিবারের সাথে পূর্ব শত্রুতার জেরেই ঘটে থাকতে পারে নির্মম এ হত্যাকান্ড।  আবার কারো কারে ধারণা, আলোচিত বিউটি হত্যাকান্ডের মত পরিবারের লোকজনই হতে পারে ঘাতক-সিমার। 

প্রসঙ্গত, শিশু ইতি আক্তার ২৫ জুলাই সকালে মসজিদের পড়তে যায়।  এরপর আর তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।  নিখোঁজের বিষয়টি নিয়ে এলাকায় মাইকিংসহ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরীও করা হয়।  পরদিন ২৬ জুলাই সকালে একদল ডুবুরী মসজিদের পাশের পুকুরে উদ্ধার অভিযান চালায়। 

এক পর্যায়ে নিহত শিশুর পিতা আব্দুস শহীদ মসজিদের পার্শ্ববর্তী ধান ক্ষেত থেকে বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করে।  পরে ওই দিন রাতে নিহত শিশুর পিতা আব্দুস শহীদ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।  মামলাটি তদন্তদের দায়িত্ব দেয়া হয় শায়েস্তাগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) রাজীবুল ইসলামকে। 

এ ঘটনায় বিরামচর সাহেব বাড়ি জামে মসজিদের মোয়াজ্জিন শামীম আহমেদ ও বাবরু মিয়াকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।  ৩০ জুলাই তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিবর্তন করে শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মানিকুল ইসলামকে দায়িত্ব দেয়া হয়।  শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

এদিকে, ইতি হত্যাকান্ড নিয়ে এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে ধ্রমজাল, এখনো চলছে তোলপাড়।  তবে এ বিষয়ে মুখ খুঁলছেন না সংশ্লিষ্ট কেউই। 


keya