৩:১৬ এএম, ২১ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | | ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

সৃজনশীলে এবার নম্বর বেড়েছে

২২ অক্টোবর ২০১৭, ০৯:৩৯ এএম | নিশি


এসএনএন২৪.কম : এবারের পরীক্ষায় সৃজনশীল অংশে ১০ নম্বর বেড়েছে, বহু নির্বাচনীতে ১০ কমেছে।  তাই শিক্ষার্থীদের নম্বর তুলতে কিছুটা পরিশ্রম করতে হবে। 
কারণ বহু নির্বাচনী থেকে নম্বর কমে সৃজনশীলে যোগ হওয়ায় এ নম্বরটুকু লিখে তুলতে হবে।  বহু নির্বাচনীতে পুরো নম্বর তুলতে পারলেই লিখিত/সৃজনশীল অংশে চাপ কমবে। 

এ বছর তিনটি বিষয়ের (শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা এবং চারু ও কারুকলা) গতানুগতিক পরীক্ষা হবে না।  তাই পরীক্ষার প্রস্তুতির পুরো সময় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোতে দিতে পারবে। 

পরীক্ষাকক্ষে প্রশ্নপত্র হাতে পেয়ে দু-একটা প্রশ্ন দেখেই লেখা শুরু করবে না।  আগে পুরো প্রশ্নটা দেখে নাও।  কোনটা আগে দেবে, কোনটা পরে, সেগুলো বাছাই করবে।  এরপর কোন প্রশ্নের জন্য কতটা সময় নেবে—মনে মনে ঠিক করবে। 

উদ্দীপক ভালোভাবে পড়ে দেখো কোন বিষয়বস্তুর ওপর করা হয়েছে। 
 এরপর যেভাবে চাওয়া হয়েছে সেভাবেই দাও।   যদি পুরোপুরি মনে করতে না পারো, যতটুকু বুঝছো ততটুকুই গুছিয়ে লেখো।    

বইয়ের আলোচনাগুলো ভালোভাবে জানা থাকলে প্রশ্ন নিয়ে অস্পষ্টতা থাকলেও ধারণা করে লেখা যায়। 

পরীক্ষা শুরুর কয়েক দিন আগেই সব বিষয় রিভিশন দেওয়ার চেষ্টা করবে।  পরীক্ষার আগের রাতে নতুন করে কিছু না পড়াই ভালো, স্রেফ আগে পড়া অংশগুলোতে চোখ বোলাবে। 
*    প্রতিটি সৃজনশীল প্রশ্নে সাধারণত একটি উদ্দীপক বা অনুচ্ছেদ থাকে।  একাধিকও থাকতে পারে। 

*    কোনো সুনির্দিষ্ট বিষয়বস্তুকে ইঙ্গিত করে বক্তব্য, বিবরণ কিংবা কবিতা উদ্দীপক হিসেবে থাকে।  ছক, গ্রাফ, ম্যাপ, সারণি, ডায়াগ্রাম বা চিত্র আকারেও থাকতে পারে। 

*    উদ্দীপক যেমনই হোক ঘাবড়ানোর কিছু নেই।  তোমার পাঠ্য বইয়ের কোনো একটি বিষয়বস্তুর আলোকে এটি করা হয়েছে।  বইয়ের কোন অধ্যায়ের কোন বিষয়বস্তুকে ইঙ্গিত করে করা হয়েছে, বুঝতে পারলে সহজেই উত্তর করতে পারবে। 

*    প্রতিটি সৃজনশীল প্রশ্নে (লিখিত অংশ) চারটি অংশ থাকে—ক, খ, গ, ঘ।  ‘ক’ হচ্ছে জ্ঞানমূলক প্রশ্ন, ‘খ’ অনুধাবনমূলক, ‘গ’ প্রয়োগমূলক ও ‘ঘ’ উচ্চতর দক্ষতামূলক।