৩:০৭ এএম, ২১ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৭ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

স্থগিত ছাত্রলীগের সম্মেলন

০৯ মার্চ ২০১৮, ০৮:৪৭ এএম | রাহুল


এসএনএন২৪.কম : বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯তম সম্মেলন স্থগিত করা হয়েছে।  ৩১ মার্চ সংগঠনটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। 

সম্মেলনের নতুন তারিখ পরে ঘোষণা করা হবে।  সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একটি সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) বিকালে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করলে তিনি এ নির্দেশনা দেন।  তবে পূর্ব নির্ধারিত তারিখ স্থগিত করতে বলা হলেও সম্মেলনের প্রস্তুতি রাখতে তাদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

জানা গেছে, পরিবেশ-পরিস্থিতি ঠিক থাকলে এপ্রিল-মে মাসে সম্মেলনের নতুন দিনক্ষণ ঠিক করতে ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতাদের পরামর্শ দিয়েছেন শেখ হাসিনা। 

আরও জানা গেছে, ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ও আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এক নেতার অনুরোধে ৩১ মার্চের সম্মেলনের তারিখ স্থগিত করেছেন শেখ হাসিনা।  সামনে জাতীয় নির্বাচন, তাই নির্বাচনের আগে ছাত্রলীগের সম্মেলন না করার পরামর্শ দেন তিনি প্রধানমন্ত্রীকে। 

অপর একটি সূত্র জানায়, এ দফায় সম্মেলন পিছিয়ে দিয়ে মাঠের পরিস্থিতি দেখতে চান শেখ হাসিনা।  সম্মেলনের দাবিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আবারও একাট্টা হলে দ্রুত নতুন তারিখ দিয়ে দেওয়া হতে পারে।  তবে সম্মেলনের তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার বিষয়টি ছাত্রলীগের বতর্মান কমিটি সামলে নিতে পারলে ভোটের আগে আর সম্মেলন নাও হতে পারে। 

আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, ‘৩১ মার্চ ছাত্রলীগের সম্মেলন আপাত হচ্ছে না।  পরবর্তীতে সময় মতো সম্মেলন আয়োজন করা হবে।  সম্মেলনের তারিখ সবাইকে জানিয়ে দেওয়া হবে। ’

ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেন, ‘৩১ মার্চ সম্মেলন হচ্ছে না।  তবে সময় মতোই ছাত্রলীগের সম্মেলন হবে।  সম্মেলনের তারিখ পরবর্তীতে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। ’

উল্লেখ্য, সম্মেলনের দাবিতে ছাত্রলীগের বড় একটি অংশ আন্দোলন শুরু করে।  এ কারণে সংগঠনের ভেতরে বিভক্তি দেখা দেয়।  ফলে ছাত্রলীগের বতর্মান সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন এ বছরের জানুয়ারি মাসে সংবাদ সম্মেলন করে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করেন।  ৩১ মার্চ ছাত্রলীগের কাউন্সিল করার নির্দেশনা দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  গতকাল (৭ মার্চ) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগ নেতাদের সম্মেলন করার পুনঃনির্দেশনাও দিয়েছিলেন।  তবে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে তার একদিন পরেই আজ নির্দেশনা পরিবর্তন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। 

এর আগে গত ৬ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সম্মেলনের বিষয়ে বলেছেন, নেত্রীর ইচ্ছা স্বাধীনতার মাসে ছাত্রলীগ সম্মেলনের আয়োজন করুক।  এরপর ১২ জানুয়ারি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩১ মার্চ সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন ও ১ এপ্রিল দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়।