৬:১৭ এএম, ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার | | ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪১




সাবেক সাংসদের জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল শ্রীপুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৩৪ এএম | নকিব


আলফাজ সরকার আকাশ,শ্রীপুর(গাজীপুর)প্রতিনিধিঃ চির নিদ্রায় শায়িত হলেন “একটি বাড়ি একটি খামার” প্রকল্পের প্রবক্তা, গাজীপুর-৩ আসনের সাবেক সাংসদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. রহমত আলী।  কয়েক দফা জানাজা শেষে গ্রামের বাড়ী গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী ভবন সংলগ্ন মসজিদের পাশে তাকে কবর দেয়া হয়। 

রীপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে তার সবশেষ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।  এর আগে, জাতীয় সংসদ ভবন সংলগ্ন স্থানে মরহুমের প্রথম ও গাজীপুরের ভবানীপুর মুক্তিযোদ্ধা কলেজ মাঠে দ্বিতীয় জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।  অত:পর লাশ হিমঘরে রাখা হয়। 

কলেজ মাঠে মরহুমের জানাজার পূর্বে তারই রাজনৈতিক জীবনের উপর আলোচনা করেন গাজীপুর-৩ আসনের সাংসদ ইকবাল হোসেন সবুজ, বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদ হাসান মকুল, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সাবেক সভাপতি মো. মোতাহার হোসেন মোল্লা, গাজীপুর পুলিশ সুপার শামছুন্নাহার পিপিএম, শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট সামসুল আলম প্রধান, সাবেক চেয়ারম্যান আঃ জলিল বিএ, কাপাসিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাভোকেট মো: আমানত হোসেন খান, শ্রীপুর পৌর মেয়র আনিছুর রহমান, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ সাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফীন, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি এমডি শামসুল আরেফিনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্ধ ও সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তাবৃন্ধ। 

এছাড়া শ্রীপুরের আইনজীবী সহ রাজনৈতিক পেশাজীবী সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ জানাজায় উপস্থিত ছিলেন।  জানাজা নামাজের পূর্বে নেতৃবৃন্দের বক্তব্যের পর মরহুমের ছেলে জামিল হাসান দূর্জয় বক্তব্য দেন।  অত:পর রাষ্ট্রীয় গার্ড অব অনার শেষে জানাজা নামাজ পড়ান মরহুমের বড় ছেলে বিজ্ঞানী জাহিদ হাসান তাপস।  নামাজের পর মরহুমের কফিনে দলীয় ও সরকারী-বোসরকারী বিভিন্ন ইউনিটের পক্ষ থেকে পুস্পার্ঘ অর্পন করা হয়। 

উল্লেখ, গত ১৬ ফেব্রুয়াারি রবিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।  দীর্ঘদিন ধরে তিনি ডায়াবেটিস ও কিডনি রোগে ভুগছিলেন বলে জানিয়েছেন তার-ই মেয়ে ও একাদশ জাতীয় সংসদের ১৪নং সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপিকা রুমানা আলী টুসী। 

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।  বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. রহমত আলী  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন এবং গাজীপুর-৩ (শ্রীপুর-ভাওয়ালগড়-পিরুজালী-মির্জাপুর) আসন থেকে ১৯৯১ সাল থেকে দশম সংসদ পর্যন্ত পাঁচবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।  এছাড়াও গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়নন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।