৮:৫৯ এএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৮ শা'বান ১৪৩৯

South Asian College

স্বামীর পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় স্ত্রী খুন

২১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১০:১৬ পিএম | সাদি


 আব্বাছ হোসাইন আফতাব, রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি : নিখোঁজের দুইদিন পর ভাড়া বাসার সিঁড়ির নিচ থেকে বানু আক্তার (২৫) নামে রাঙ্গুনিয়ার এক মেয়ের বস্তাবন্ধী লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।  স্বামীর পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা নিহতের স্বজনদের। 

এই বিষয়ে নিহতের বড় বোন জুলেখা বেগম বাদী হয়ে নগরীর চান্দগাঁও থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।  ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে স্বামী, নিহতের ভাবী ও ভাতিজিকে মামলায় আসামী করা হয়েছে।  নিহত বানু আক্তারের লাশ পোষ্টমর্টেম শেষে বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) ভোররাতে রাঙ্গুনিয়ার নিজ এলাকায় তাকে দাফন করা হয়েছে।  আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে বলে জানান চান্দগাঁও থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কাজল সরকার।  মামলার আসামীরা পলাতক রয়েছে।   

নিহতের ভাগ্নে মো. সেলিম জানান, পটিয়া উপজেলার মনসা ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইয়াকুবদন্ডি কাজীপাড়া গ্রামের ইছহাক মিয়ার পুত্র মো. হাসানের তাঁর খালা রাঙ্গুনিয়া উপজেলার শিলক ইউনিয়নের মিনাগাজীর টিলা গ্রামের রুহুল আমিনের ছোট মেয়ে বানু আক্তারের সাথে প্রেমের সম্পর্কে বিয়ে হয়।  প্রেম করে বিয়ে করায় স্বামী হাসান বানুকে পটিয়া নিয়ে গেলে শশুড় শাশুড়ী তাঁদের গ্রহন করেনি।  পরে বানুর নিজ বাড়ি রাঙ্গুনিয়ার স্বামীসহ তাঁরা থাকতেন।  স্বামী রাজমিস্ত্রীর কাজ করে ভালোই সংসার চলছিল তাদের।  বিয়ের এক বছর পর তাদের কোলে ফুটফুটে পুত্র সন্তান আসে।  দুই বছর পর জন্ম নেন দেড় বছরের কন্যা সন্তান। 

এরই মাঝে স্বামী মো. হাসান বানুর বড় ভাইয়ের স্ত্রী মোহছেনা আকতার (৪৫)এর সাথে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।  সবার অজান্তে স্বামী দীর্ঘদিন ধরে এই অবৈধ সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিল।  ইতিমধ্যে বানুর ভাবীর মেয়ে শাহানা আকতার গার্মেন্টেসে চাকুরি করার সুবাধে চট্টগ্রাম শহরে চলে যান।  গত এক  মাস আগে ভাল রোজগারের কথা বলে স্ত্রী বানুকে নিয়ে ভাবী মোহছেনার পাশে বিল্ডিং নগরীর চান্দগাঁও সানোয়ারা আবাসিক এলাকার চাঁন্দার বাড়ির ভাই ভাই বিল্ডিংয়ের ভাড়া বাসা নিয়ে থাকা শুরু করে।  সেখানে স্বামী সবজী ব্যবসা শুরু করেন ও স্ত্রীকে গামেন্টসে চাকুরী দেন।  বানু প্রতিদিন গার্মেন্টসে যাওয়ার সুযোগে খালি বাসায় স্বামী হাসান ও ভাবির সাথে দেখা সাক্ষাতের সুযোগে অনৈতিক সম্পর্ক জড়িয়ে যান।   বিষয়টি হাসানের স্ত্রীর বানু টের পেলে তাঁদের মাঝে ঝগড়া বিবাদ বাঁধে।  গত সোমবার দুপুরে একই ভাবে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়।  রাত থেকে বানুকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। 

দুইদিন পর বুধবার দুপুরে বিল্ডিংয়ের সিঁড়ির নিচে লাশ দেখতে পান এলাকার লোকজন।  খবর পেয়ে চান্দগাঁও থানা পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।  ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাতে তাকে রাঙ্গুনিয়ার গ্রামের বাড়িতে তার লাশ দাফন করা হয়। 

মামলার বাদী জুলেখা বেগম বলেন, বিয়ের পর থেকে বানুকে যৌতুকের জন্য প্রায় সময় নির্যাতন করত।  পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় তাঁর বোনকে খুন করা হয়েছে।  তিনি খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি  দাবি করেন।  

নগরীর চান্দগাঁও থানার এসআই কাজল সরকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,  ‘যৌতুক ও পরকীয়ার জেরে এই হত্যাকান্ড হয়েছে বলে বাদী এজাহারে উল্লেখ করেছেন।  লাশের সুরতহাল রিপোর্টে গলায় হালকা আঙ্গুলের চাপ পাওয়া গেছে।  ময়নাতদন্ত শেষে প্রকৃত রহস্য জানা যাবে।  জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। 

Abu-Dhabi


21-February

keya