৯:১৮ এএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ২ রবিউস সানি ১৪৪০




সীমান্ত নদী চলতিতে পাথর উক্তোলনকালে গর্তের মাটি চাঁপায় ২ নারী শ্রমিক নিহত

১০ এপ্রিল ২০১৮, ০২:২৬ পিএম | সাদি


সিলেট প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের ডলুরায় সীমান্তবর্তী চলতি নদীর তীরে গর্তের ওপরের মাটি ধ্বসে- মাটি চাঁপায় ২ নারী পাথর শ্রমিক নিহত হয়েছেন। ’ মঙ্গলবার সকালে পাথর উক্তোলন করতে গিয়ে চলতি নদীর পূর্ব তীরের খোঁড়া গর্তের ওপর থেকে  মাটি ধ্বসে নারী শ্রমিকরা নিহত হন। 

সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের ডলুরার সীমান্তনদী চলতি নদীর জিরো লাইনের পুর্বতীরের গর্তের মাটি ধ্বসে মঙ্গলবার সকাল ৮ টা থেকে সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটেছে।  ওই এলাকাটি ২৮-বর্ডারগার্ড ব্যাটালিয়ন ডলুরা বিওপির বিজিবি নিয়ন্ত্রিত এলাকা বলে স্থানীয় লোকজন নিশ্চিত করেন। 

নিহতরা হলেন, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের ফেনী বিল গ্রামের চাঁন মিয়ার স্ত্রী রহিমা খাতুন (৩৫) ও পার্শ্ববর্তী গুচ্ছ গ্রামের তাজু মিয়ার স্ত্রী আলেয়া বেগম (৩২)। 

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী ডলুরায় চলতি নদীর পুর্বতীরে পাথর উক্তোলনের জন্য খোঁড়া গর্ত থেকে পাথর উক্তোলন করতে গেলে মঙ্গলবার সকাল ৮ থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে গর্তের ৫০ থেকে ৫০ ফুট ওপর থেকে মাটি ধ্বসে চাঁপা পড়ে নারী পাথর শ্রমিক রহিমা ও আলেয়া বেগম গর্তের ভেতরই নিহত হন। ’ এ সময় একই সময় ওই গর্তে পাথর উক্তোলন কাজে   আরো ৫  নারী -পুরুষ শ্রমিক গর্তের ওপরে অন্যপাশে থাকায় তাদের কেউ হতাহত হননি। ’

পরে আশেপাশা থাকা অন্যান্য গর্তের শ্রমিক ও সর্দাররা ওই দু ’নারী শ্রমিকের লাশ মাটি কেঁট  উদ্ধার করে সকাল ১০টার দিকে নিহত রহিমার লাশ তার বাবার বাড়ি বিশ্বম্ভরপুরের পশ্চিম ডলুরায় ও আলেয়ার লাশ তার গুচ্ছ গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় বিষয়টি ধামাচাঁপা দিতে।  ’

খবর পেয়ে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দুপুরে ঘটনাস্থলে পৌছেন। ’ অভিযোগ রয়েছে চলতি নদীর জিরো পয়েন্ট লাগোয়া পুর্বতীর ঘেষে ও নদীর মাঝখানে অবৈধভাবে কমপক্ষে ৩০ থেকে ৩৫টি ছোট বড় পুকুরের ন্যায় গভীর গর্ত তৈরী করে গত ৬ মাসের বেশী সময় ধরে কয়েকটি সিন্ডিক্যাট পাথর উক্তোলন কাজে এলাকার হত দরিদ্র ৫ থেকে ৬’শ নারী পুরুষ শ্রমিককে ব্যবহার করছেন নামমাত্র মজুরি দিয়ে। 

সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. সহীদুল্লাহ মঙ্গলবার বেলা দেড়টায়  নদীর তীরে পাথর গর্তে মাটি ধ্বসে মাটি চাঁপায় ২ নারী পাথর শ্রমিক নিহত হওয়ার সত্যতা স্বীকার করেন। 



keya