৭:৩৯ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৭ মুহররম ১৪৪০


সুস্থ থাকার সবচেয়ে বড় ওষুধ হল সবুজ প্রকৃতি

১১ জুলাই ২০১৮, ১০:০৫ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : পৃথিবীজুড়ে ডায়াবেটিস আর হৃদযন্ত্রের সমস্যা অত্যন্ত অত্যন্ত ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে।  বয়স একটু বাড়লে এই দু’টোর একটা রোগ তো শরীরে বাসা বাঁধবেই।  তাই রোগ হওয়ার আগেই সতর্ক থাকা প্রয়োজন। 

সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রকৃতির কাছাকাছি থাকলে এই দু’টি রোগের সম্ভাবনা কমে। 

সুস্থ থাকার সবচেয়ে বড় ওষুধ হল সবুজ প্রকৃতি।  ব্রিটেন ইউনিভার্সিটি অফ ইস্ট অ্যাঞ্জিলার অ্যান্ডি জোন্স বলেছেন, অসুস্থ হলে সবাই ডাক্তারের স্মরণাপন্ন হয়।  কিন্তু ওষুধের সাহায্য না নিয়ে প্রকৃতির সাহায্যে সুস্থ থাকার কি আরও ভাল নয়?

পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, এক্ষেত্রে মানুষ সুস্থ থাকে অনেক বেশি।  এনভায়রনমেন্টাল জার্নালে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে। 

বিশ্বের মোট ২০টি দেশে এই সমীক্ষা চালানো হয়।  তার মধ্যে রয়েছে- ব্রিটেন, আমেরিকা, স্পেন, ফ্রান্স, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান।  ২৯ কোটি মানুষের মধ্যে সমীক্ষা চালানো হয়। 

সমীক্ষায় দেখা যায়, প্রকৃতির মধ্যে অনেকক্ষণ থাকলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে।  এছাড়া ঘুম বৃদ্ধি পায়।  মানসিক চাপও কমে।  এতগুলো কাজ একসঙ্গে হলে স্বাভাবিকভাবেই মানুষের শরীরে রোগ কম বাসা বাঁধে।  শরীর তো সুস্থ থাকেই।  এছাড়া ঘুম ভাল হওয়ায় ও মানসিক চাপ কমার ফলে মানসিকভাবেও সুস্থ থাকে মানুষ। 

তাই সুস্থ থাকতে চাইলে বাড়িতে গাছ লাগানোর মতো উপযোগি আর কিছুই নেই।  বাড়ির সামনে ফাঁকা জায়গা থাকলে তো ভালই।  জায়গাটি ফেলে না রেখে সেখানে গাছ লাগান।  এতে শুধু সৌন্দর্য বাড়ে না, সুস্থ থাকার সম্ভাবনাও বাড়ে।  আর যদি বাড়ির সামনে ফাঁকা জায়গা না থাকে, তাহলে চেষ্টা করুন ব্যালকনিতে বা বারান্দায় গাছ লাগানোর।  সে বৃক্ষ না হয় না হল, লতানে গাছ লাগান।  ঘরের মধ্যেও গাছ লাগাতে পারেন।  এতে ঘরে ফ্রেশ লুক আসবে, আবহাওয়াও ভাল থাকবে। 

গবেষকরা জানিয়েছেন, সমীক্ষা থেকে যে তথ্য পাওয়া গিয়েছে, তা চিকিৎসকদের জিজ্ঞাসা করা হয়।  ফলাফল দেখে একটু হলেও অবাক চিকিৎসকরা।  এরপরই তারা সুস্থ থাকার জন্য রোগীদের প্রকৃতির সঙ্গে দিন কাটানোর পরামর্শ দিচ্ছেন।  বাড়ির আশপাশে গাছপালা থাকলে তো ভালই।  নাহলে বাড়ি থেকে দূরে কোথাও গাছপালার মধ্যে কিছুদিন কাটিয়ে আসতে বলছেন।