১:২৫ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৭, শনিবার | | ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

হবিগঞ্জে খোয়াই নদীতে নৌকা ডুবে শিশুসহ নিহত ৩ নিখোঁজ ৮

০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৭:৪৭ এএম | রাহুল


আখলাছ আহমেদ প্রিয়, হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের খোয়াই নদীতে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে।  এ ঘটনায় পুলিশ শিশুসহ ৩ জনের লাশ উদ্ধার করলেও নিখোঁজ রয়েছেন অপর আরো ৮ জন।  গুরুতর আহত অস্থায় ৪ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় নিখোজ স্বজনদের বাড়িতে উদ্বেগ-উৎকন্ঠা বিরাজ করছে।  অনেকেই মধ্যরাতে নিখোজ ব্যক্তিদের সন্ধানে খোয়াই নদীর পাড়ে ভীড় জমিয়েছেন। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, হবিগঞ্জ শহরের চৌধুরী বাজার এলাকা থেকে সিমেন্ট বোঝাই একটি ইঞ্জিন নৌকা প্রায় ৩০ জন যাত্রী নিয়ে কাশিপুর যাওয়ার পথে খোয়াই নদীর লম্বাবাক এলাকায় পৌছা মাত্র অতিরিক্ত যাত্রীবহনের কারনে ডুবে যায়।  এ সময় অনেকেই সাতার কেটে নদীর পাড়ে উঠতে পারলেও নারী, শিশুসহ ১১ জন পানির নীচে তলিয়ে যান।  পরে হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ ৩ জনের লাশ উদ্ধার ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় গুরুতর আহত ৪ ব্যক্তিকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। 
নিহতরা হল, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের বিধবা অবলা রানী সরকার (৪৬), একই গ্রামের মুক্তারানী দাশ (৮) ও কাশিপুর গ্রামের ফুল চান বিবি (৭০)। 

পুলিশের তালিকায় নিখোজরা হলো- হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বড়কান্দি গ্রামের জানু মিয়ার স্ত্রী মিনারা বেগম (২৮), পুত্র জুম্মন মিয়া (৭ মাস) ও কন্যা অনামিকা (৭), একই গ্রামের আলাই মিয়ার কন্যা নুরজাহান বেগম (৩০), লাখাই শাহপুর গ্রামের ইসলাম উদ্দিনের স্ত্রী আলিমা বেগম (৩২), একই গ্রামের নজির মিয়ার পুত্র আইনুল হক (২৫), ফান্দ্রাইল গ্রামের জালাল চৌধুরীর স্ত্রী আঙ্গুরা খাতুন (২৮) ও পুত্র আব্দুল রাকিব চৌধুরী (৪)।  হাসপাতালে ভর্তি আহতরা হল, বানিয়াচং উপজেলার শাহপুর গ্রামের শাফিয়া আক্তার (১৮), রিপন মিয়া (২২), একই উপজেলার রতনপুর গ্রামের শাহেদা বেগম (৪৫) ও মোহাম্মদ আলী (৬০)।  তবে এ ঘটনায় নিখোঁজ ৫ ব্যক্তির পরিচয় তাৎক্ষণিক ভাবে জানা যায়নি।  হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ নৌকাডুবির ঘটনায় ৩ নারী-শিশুর লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। 

এ ব্যাপারে, হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) মানিকুল ইসলাম জানান, নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারের জন্য প্রচেষ্টা চলছে।  তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে জানান, নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। 

এদিকে, গতকাল রাতেই নিহতের প্রত্যেক পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান দেওয়ার ঘোষনা দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এমরান হোসেন।  এরই মধ্যে নিহত অবলা রানী সরকারের পরিবারকে ১০ হাজার টাকার আর্থিক অনুদান দেওয়া হয়েছে।  অপরদিকে, নিখোঁজ ব্যক্তিদের খুঁজতে আজ শুক্রবার সকালে সিলেট থেকে ডুবুরিদল হবিগঞ্জে আসছে।  নিখোজ ব্যক্তিদের পরিবারের লোকজন তাদের স্বজনদের খুজতে ভোর রাত পর্যন্ত নদী পাড়ে ঘুরতে দেখা গেছে।