১১:৪৪ এএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, শনিবার | | ২ মুহররম ১৪৩৯

South Asian College

সুস্থ থাকুন, সুস্থ রাখুন

হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ ও প্রতিকার

০৪ আগস্ট ২০১৭, ০৭:৪৪ এএম | পলি


এসএনএন২৪.কম : সাধারণত দু’ভাবে হার্ট অ্যাটাক হতে পারে।  কোনো কোনো লোকের হয়তো আগে থেকে কিছু কিছু লক্ষণ থাকে।  যেমন—অনেকের হয়তো পরিশ্রম করতে গিয়ে বুকে ব্যথা হতো, বিশ্রাম করলে তিনি ভালো থাকতেন।  এভাবে কয়েক মাস বা কয়েক বছরও চলে যেতে পারে।  আবার কোনো কোনো লোকের ক্ষেত্রে হঠাৎ করেই হার্টের শিরা বন্ধ হয়ে যায়।  আসলে আগে থেকে রোগ থাকুক বা না থাকুক যদি কোনো কারণে হঠাৎ হার্টের রক্ত সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়, হার্টের রোগ হয়, একে সাধারণত হার্ট অ্যাটাক বলা হয়ে থাকে।  তাই নিজে সুস্থ থাকতে এবং প্রিয়জনদের সুস্থ রাখতে জেনে নিন হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ এবং প্রতিরোধের উপায়গুলো। 

হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ :

১. শ্বাসকষ্ট, মাথা ঝিমানো ও জ্ঞান হারানো হার্ট অ্যাটাকের কয়েকটি পূর্বলক্ষণ।  করোনারি শিরা-উপশিরায় ব্লক পড়ার ফলে হৃদপিণ্ডের মাংসপেশীতে অক্সিজেনযুক্ত রক্ত সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এ লক্ষণগুলো দেখা দেয়। 
২.আর ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে বুকে তীব্র ব্যথা অনুভুত হওয়ার চেয়েও শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে ঘাম ঝরা, মাথা ঘোরা ও ক্ষণিকের জন্য চেতনাহীন হয়ে পড়াটাই হার্ট অ্যাটাকের সবচেয়ে কমন পূর্বলক্ষণ। 
৩. বুকে ব্যথা হওয়ার সাথে কিংবা ব্যথা ছাড়াই যদি শ্বাস নিতে কষ্ট হয় তাহলে অবশ্যই সঙ্গে সঙ্গে চিকিত্সকের কাছে যান। 
৪. হার্ট অ্যাটাকের পরপরই শরীর থেকে প্রচুর ঘাম বের হতে থাকবে।  সংবেদনশীল স্নায়ুতন্ত্র অতিরিক্ত ক্রিয়াশীল হয়ে পড়ায় এ সময় শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে ঘাম ঝরে।  এ ছাড়া বুকে ব্যথা শুরু হওয়ার পরপরই শরীর থেকে বেশ কয়েকটি হরমোন নিঃসরিত হয় যা রক্তচাপ ও হার্ট বিট বাড়িয়ে দেয়।  এ কারণেও শরীর থেকে প্রচুর ঘাম বের হয়। 
৫. ক্লান্তি-অবসাদও হার্ট অ্যাটাকের বড় লক্ষণ। 
৬. হার্ট অ্যাটাকের সবচেয়ে কমন একটি লক্ষণ হল বাম বুকের মাঝবরাবর তীব্র ব্যথা অনুভব হওয়া।  এ ব্যথা শরীরের পুরো বাম পাশকেই অবশ করে ফেলতে পারে।  বিশেষ করে বাম বাহু ও পিঠ এবং দুই সিনার মাঝখানটাকেও আক্রান্ত করতে পারে।  এ ছাড়াও এ ব্যথা চিবুক পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে চোয়ালকেও আক্রান্ত করতে পারে। 
৭. তলপেটের উপরিভাগে অস্বস্তি এবং হৃদপিণ্ডে জালাপোড়াও হৃদরোগের পূর্বলক্ষণ।  এ লক্ষণগুলোকে অনেক সময় এসিডিটি ও হৃদপিণ্ডের সাধারণ প্রদাহ গণ্য করে ভুল করা হয়। 
৮. তীব্র বমির অনুভুতিও হার্ট অ্যাটাকের একটি ছদ্মবেশী পূর্বলক্ষণ।  তবে এটাকেও অনেকসময় ভুলবশত গ্যাস্ট্রিক ও বদহজমের কারণে সৃষ্ট সমস্যা হিসেবে গণ্য করা হয়। 
৮. হার্ট অ্যাটাকের আরো কয়েকটি পূর্ব লক্ষণ হল- অকারণ অবসাদগ্রস্ততা, বিবর্ণতা, ধড়ফড়ানি ও উদ্বিগ্নতা। 

প্রতিকারের উপায় :

১. স্বাস্থ্যকর জীবন-যাপন মেনে চলা।  স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া।  প্রচুর পরিমাণে ফল এবং সবজি খেতে হবে। 
২. রক্তচাপ ঠিক রাখতে নিয়মিত শরীরচর্চা করা প্রয়োজন।  এর ফলে একদিকে যেমন রক্তচাপ সঠিক থাকে, তেমনই ওজনও সঠিক থাকে। 
৩. হার্ট অ্যাটাকের পর রোগীর যদি বমি আসে তাহলে তাকে একদিকে কাত করে দিন।  যাতে সে সহজেই বমি করতে পারে।  এতে ফুসফুসের মতো অঙ্গে বমি ঢুকে পড়া থেকে রক্ষা পাবেন রোগী। 
৪. হৃদপিণ্ডে রক্তের সরবরাহ বাড়াতে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত ব্যক্তির দুটো পা-ই উপরের দিকে তুলে ধরুন। 
৫. কারো হার্ট অ্যাটাক হলে প্রথমেই জরুরি ভিত্তিতে ডাক্তার ডেকে আনতে হবে।  কারণ অভিজ্ঞ ডাক্তার ছাড়াই কোনো চিকিৎসা করতে গেলে অনেক সময় রোগীর অবস্থা আরো খারাপ হয়ে পড়তে পারে। 
৬. হার্ট অ্যাটাকের পরপরই রোগীকে শক্ত জায়গায় হাত-পা ছড়িয়ে শুইয়ে দিন এবং গায়ের জামা-কাপড় ঢিলেঢালা করে দিন।  আর সম্ভব হলে জামা-কাপড় খুলে ফেলুন। 
৭. বাতাস চলাচলের রাস্তাগুলো সব উম্মুক্ত করে দিন।  এরপর রোগীকে গভীরভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে সহায়তা করুন। 
৮. হার্ট অ্যাটাকের পর হাতের কব্জিতে পালস টেস্ট না করে বরং ঘাড়ের কোনো একপাশে পালস টেস্ট করুন।  কারণ নিম্ন রক্তচাপের কারণে হার্ট অ্যাটাকের পর হাতের কব্জিতে পালস নাও ধরা পড়তে পারে। 
৯. হার্ট অ্যাটাকের পর যদি রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস বন্ধ হয়ে যায় তাহলে তাকে কৃত্রিম উপায়ে অক্সিজেন সরবরাহের চেষ্টা করুন। 
১০. তামাক জাতীয় দ্রব্য বর্জন করতেই হবে। 
১১. তামাকের মতো অ্যালকোহলে প্রচুর পরিমাণে ক্যালোরি থাকে।  অতিরিক্ত মদ্যপান রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়।  তাই হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধ করতে মদ্যপান ত্যাগ করতে হবে। 
১২. হার্ট অ্যাটাকের পর হৃদপিণ্ডে রক্তের সরবরাহ বাড়ানোর জন্য বাজারে প্রচলিত ওষুধও রোগীকে তাৎক্ষণিকভাবে খাইয়ে দিতে পারেন। 
১৩. হার্ট অ্যাটাকে রোগী যদি অচেতন হয়ে পড়েন তাহলে সিপিআর থেরাপি প্রয়োগ করুন।  সম্প্রতি আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন হ্যান্ডস অনলি সিপিআর নামে এ থেরাপির একটি সরলীকৃত ভার্সন ভিডিও আকারে বাজারে ছেড়েছে। 

তথ্য ও ছবি : ইন্টারনেট