১১:৫৪ পিএম, ২০ জুলাই ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ জ্বিলকদ ১৪৩৯


১০ দফা দাবিতে জাককানইবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি

১২ জুলাই ২০১৮, ০১:৪৪ এএম | সাদি


এস.এম.মহিউদ্দিন সিদ্দিকী, জাককানইবি প্রতিনিধি: জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাককানইবি) ১০ দফা দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেছে লোক প্রশাসন ও সরকার পরিচালন বিদ্যা বিভাগের ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। 

 ১১ জুলাই, বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এইচ এম মুস্তাফিজুর রহমানের কাছে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসের আয়তন বৃদ্ধিকরণ,
টি.এস.সি এবং অডিটোরিয়াম দ্রুত নির্মাণ,নির্মাণাধীন ছাত্র-ছাত্রী হলের কাজ দ্রুত সমাপ্তকরণ সহ ১০টি দাবি পেশ করে স্বারকলিপি প্রদান করেন। 

জানা যায়,লোক প্রশাসন ও সরকার পরিচালন বিদ্যা বিভাগের ৮ম ব্যাচের ১ম সেমিস্টারের ১ টি কোর্স নিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান।  সর্বশেষ  ক্লাস হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফারেন্স রুমে ক্লাস নিয়েছেন।  সেখানে ক্লাস শেষে শিক্ষার্থীরা  ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়ে ১০ দফা দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করে। 

স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে- অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে আমরা গর্বিত।  কিন্তু আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি অনন্য বিদ্যাপীঠ হিসেবে গড়ে তুলতে অনেক কিছুর প্রয়োজন। 

স্মারকলিপিটি উপাচার্যের হাতে তুলে দেওয়ার সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। 

উল্লেখ্য, তাদের দশ দফা দাবি- ক্যাম্পাসের আয়তন বৃদ্ধিকরণ, টি. এস.সি এবং অডিটোরিয়াম দ্রুত নির্মাণ, নির্মাণাধীন ছাত্র -ছাত্রী হলের কাজ দ্রুত সমাপ্তকরণ, পর্যাপ্ত বাসের ব্যবস্থা গ্রহণ, লাইব্রেরীতে  পর্যাপ্ত বইয়ের সরবরাহ নিশ্চিত করণ, "ব্যাথার দান" এ প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবরাহ নিশ্চিত করণ, ক্যাম্পাসে এটিএম বুথের ব্যবস্থা এবং খেলার মাঠ সংস্কারকরণ, ভার্সিটির ওয়েবসাইট সমৃদ্ধ ও ডিজিটালকরণ, ডিপার্টমেন্টে ফিল্টারের মাধ্যমে সুপেয় পানির ব্যবস্থাকরণ ও ক্যাম্পাসের ভিতরে রাস্তা সংস্কারকরণ ও পর্যাপ্ত পরিমাণ বৃক্ষ রোপণ। 

লোক প্রশাসন বিভাগের ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাজেদুল ইসলাম বলেন, আমরা ভি সি স্যার এর ক্লাস পেয়ে ধন্য, আমরা ১০দফা দাবি দিয়েছি,যে গুলো সকলের প্রাণের দাবি।  এই দাবিগুলো বাস্তবায়িত হলে,একটা অনন্য অতুলনীয় বিশ্ববিদ্যালয় হবে।  তাই আমরা এর দ্রুত কার্যকর চাই। 

একই ব্যাচের শিক্ষার্থী জেবিন জাহান বলেন, যেই দাবি গুলা আমাদের ব্যাচের পক্ষ থেকে উল্লেখ করা হয়েছে,আমি মনে করি এসব দাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের  সকল শিক্ষার্থীদের চাওয়া পাওয়া। আমরা দ্রুত কার্যকর চাই। 

শিক্ষার্থীদের এ দাবির প্রেক্ষিতে উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘তোমাদের দাবি যৌক্তিক,এসব আমারও চাওয়া পাওয়া। 



keya