৩:৪০ এএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার | | ২০ সফর ১৪৪৩




নওগাঁয় খালেকুজ্জামান

মওলানা ভাসানীর জীবন সংগ্রাম থেকে শিক্ষা নিয়ে শক্তিশালী কৃষক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে

৩০ নভেম্বর -০০০১, ১২:০০ এএম | মোহাম্মদ হেলাল


আব্দুল মান্নান, নওগাঁ : বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ-এর কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক খালেকুজ্জামান বলেছেন মওলানা ভাসানী উপনেবিশক বৃটিশ-ভারতে, পাকিস্তান আমলে এবং স্বাধীন বাংলাদেশে সারাজীবন কৃষক ক্ষেতমজুর-আদিবাসীসহ গ্রামের অবহেলিত, নিপীড়িত মানুষ ও শ্রমজীবি মেহনতি জনতার অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করে গেছেন।  তিনি ছিলেন স¤্রাজ্যবাদ, সামন্তবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে আপোষহীন যোদ্ধা।  তাঁর জীবন সংগ্রাম থেকে শিক্ষা নিয়ে শোষন মুক্তির লক্ষ্যে শক্তিশালী কৃষক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। 

সোমবার বিকালে নওগাঁ নওযোয়ান মাঠে মজলুম জননেতা মওলানা ভাষানী স্মরনে আয়োজিত এক কৃষক ও ক্ষেতমজুর সমাবেশে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে একথা বলেছেন।  ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট/ বাসদ আয়োজিত এই সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাবেশ প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক আলতাফুল হক চৌধুরী আরব। 

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ভাসানী গবেষক কলামিষ্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ আহম্মেদ, ভারতের নর্থ বেঙ্গল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বিশিষ্ট লেখক অজিত কুমার রায়, সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের সাধারন সম্পাদক বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি ও বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য জাহেদুল হক মিলু, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাধারন সম্পাদক বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন, সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যক্ষ ওয়াজেদ পারভেজ, সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের কেন্দ্রয় কমিটির সদস্য এ্যাড. সাইফুল ইসলাম পল্টু, বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির নওগাঁ জেলা কমিটির আহবায়ক প্রদ্যুৎ ফৌজদার এবং সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট নওগাঁ জেলা কমিটির সভাপতি মঙ্গল কিসকু। 

খালেকুজ্জামান বলেন, আমাদের স্বাধীনতার ৪৫ বছর পেরিয়ে গেলেও আজ পর্যন্ত কৃষক শ্রমিকের অধিকার অর্জিত হয় নি।  এতগুলো বছর অতিক্রান্ত হলেও বাংলাদেশের ভুমি সংস্কার, কৃষকের উৎপাদিত ফসলের নায্য দাম, কম দামে সার-বীজ, কিটনাশকসহ কৃষি উপকরনের পর্যাপ্ত ও সময়মত সরবরহা, ক্ষেতমজুরদের সারা বছর কাজ ও খাদ্যের নিশ্চয়তা, ক্ষেতমজুর ভুমিহীনদের রেজিষ্ট্রেশন কার্ড প্রদান, আদিবাসীদের ভুমির অধিকার ও সাংবিধানিক স্বীকৃতিসহ তাদের দীর্ঘদিনের দাবী আজও বাস্তবায়িত হয়নি।  তিনি বলেন স্বাধীনতার ৪৫ বছরে আজ প্রমানিত হয়েছে গদত ৪৫ বছরে আওয়ামী-বিএনপি কেন্দ্রীক দ্বি-দলীয় বর্জোয় শাসন ব্যবস্থা মানুষের জীবনে শান্তি-স্বস্তি, সুখ-সমৃদ্ধ দিতে পারে নি।  ফলে আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে মহাজোট ও বিএনপি’র নেতৃত্বে ২০ দরীয় জোটের অধঃপতনের কারনে বর্তমানে বাম গণতান্ত্রিক বিকল্প রাজনৈতিক শক্তি গড়ে তোলার কোন বিকল্প নাই। 

এন এ কে