১:৩৭ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার | | ৯ সফর ১৪৪৩




সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের পাশে তারকারাও

১৯ মে ২০২১, ১০:০২ এএম |


এসএনএন২৪.কম: প্রথম আলোর সিনিয়র রিপোর্টার রোজিনা ইসলামকে হেনস্তার প্রতিবাদে এবং মুক্তির দাবিতে উত্তাল সরব নেট দুনিয়ার বাসিন্দারা। 

যার যার অবস্থান থেকে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন সংবাদকর্মীরাও।  নেট দুনিয়ায় #FreeRozina এবং #JournalismIsNotACrime লিখে রোজিনার পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকেই। 

শোবিজ তারকাদের অনেকেই আছেন সে তালিকায়।  রোজিনার জন্য আওয়াজ তুলে নিজেদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।  তালিকায় চঞ্চল চৌধুরী থেকে শুরু করে সঙ্গীতশিল্পী কোনাল আছেন। চঞ্চল চৌধুরী লিখেছেন, ‘করোনার কারণে আমরা যে মুখোশ পরা শুরু করেছি সে অভ্যাসটা চলমান থাক।  কিন্তু আসুন, আসল মুখোশটা খুলে অন্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়াই।  দৃপ্ত কন্ঠে আওয়াজ তুলি, রোজিনা ইসলামের মুক্তি চাই। 

জয়া আহসান লিখেছেন, ‘রোজিনা সাংবাদিকতার দায়িত্ব পালন করতে গিয়েছিলেন, সিঁধ কাটতে নয়।  দেখতে পেলাম হেনস্তার শিকার হয়ে তিনি মাটিতে পড়ে যাচ্ছেন।  এই আমাদের আচরণ! এই আমাদের সভ্যতা! রোজিনার গলার ওপর চেপে বসা আঙুলগুলো গভীর অর্থময় এক প্রতীকের মতো লাগছে।  মনে হচ্ছে, আঙুলগুলো কোনো ব্যক্তির গলায় নয়, বরং বাংলাদেশের বাকস্বাধীনতার কণ্ঠনালিতে চেপে বসেছে।  স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতেই এমন অশুভ একটি ঘটনা আমাদের দেখতে হলো? রোজিনাকে তার পরিবারের কাছে দ্রুত ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি। ’

সাংবাদিক রোজিনাকে সাহসিনী বলে উল্লেখ করেছেন মেহের আফরোজ শাওন।  তিনি লিখেছেন, ‘অথচ তিনি নায়িকাদের ঈদ ফ্যাশন কিংবা সেলিব্রেটিদের প্রিয় রান্নার খবর ছেপে সেলফিময় ফেসবুক চালিয়ে যেতে পারতেন! কিন্তু এই সাহসিনী বেছে নিয়েছিলেন অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা।  আর তাই আজকের এই পুরষ্কার!

নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী লিখেছেন, ‘কালকের ঘটনাটার মাঝে এক ধরনের মাস্তানির ভাব আছে! সাংবাদিক সমাজের উচিত এই বাড়াবাড়ি বা মাস্তানির ঘটনায় যারা জড়িত তাদের সবার বিচার নিশ্চিত করতে সোচ্চার থাকা! এবং রুটিন করে আগামী এক মাস স্বাস্হ্য মন্ত্রনালয়ের সব পর্যায়ের দুর্নীতি নিয়ে আরো বেশি বেশি রিপোর্ট করা! যা তারা থামাতে চেয়েছে, তাকেই আরো জ্বালিয়ে দেয়াটাই হবে আসল উত্তর!

সঙ্গীতশিল্পী এলিটা করিম নিজের প্রোফাইল পরিবর্তন করেছেন।  রোজিনাকে নিয়ে কণ্ঠে প্রতিবাদী গান তুলেছেন সঙ্গীতশিল্পী কোনাল।  গানের নাম ‘সত্য কন্যা রোজিনা’।  কণ্ঠ দেয়ার পাশাপাশি কথা ও সুর করেছেন কোনাল নিজেই।  কোনাল লিখেছেন, ‘আমার মা বলেছে, রোজিনাদের কলম কোনোদিন থামবে না! জয় বাংলা! রোজিনাকে মুক্ত করতে হবে।  আর একটি কথাও শুনব না!’