৬:২৭ এএম, ৮ ডিসেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার | | ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪




হালদার বাঁক কাঁটায় হাটহাজারী থেকে বিছিন্ন বাড়ীঘোনা ও গড়দুয়ারার একাংশ

২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৩৪ পিএম |


রাউজান প্রতিনিধিঃ

হাটহাজারী উপজেলার বাড়ী ঘোনা ও গড়দুয়ারা ইউনিয়ন থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ায় এলাকার মানুষ যাতায়ত করতে হচ্ছে রাউজান উপজেলার উরকিরচর, বিনাজুরী ও দক্ষিণ গহিরার সীমনা দিয়ে।  এ এলাকার ছেলে মেয়েরা লেখাপড়াও করেন রাউজানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।  জানা যায়, প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীর বাঁক কেটে ফেলায় খালের গতি পরিবর্তনে বাড়ী ঘোনা বিচ্ছিন্ন হয়ে রাউজান উপজেলার উরকিরচর, খলিফার ঘোনা, শেখ পাড়া, দক্ষিণ ঢাকাখালী, আবুর খীল এলাকার সাথে চলে যায়।  শত বৎসর ধরে মাদার্শা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বাড়ীঘোনা এলাকার বাসিন্ধারা নিজ উপজেলা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে।  তারা রাউজান উপজেলার উরকিরচর ইউনিয়নের উপর দিয়ে হাটহাজারী উপজেলার মদুনাঘাট এলাকা দিয়ে নিজ উপজেলা সদরে যেতে হয়।  নয়’শ পরিবারের ৩ হাজার মানুষ বসবাস করে বাড়ীঘোনা গ্রামে।  তাদের চলাচলের একমাত্র উপায় উরকিরচর ইউনিয়নের হালদা নদীর উপর পুরাতন লৌহার ঝঁকিপূর্র্ণ ব্রীজ দিয়ে।  এ ব্রীজ দিয়ে প্রতিদিন তারা চট্টগ্রাম শহর ও স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা চলাচল করে থাকে।  বাড়ীঘোনা এলাকার বাসিন্ধা নুরুল আলম বলেন, হালদা নদীর বাক কেটে দেওয়ায় হালদা নদীর গতি পরিবর্তন হওয়ায় বাড়ীঘোনা গ্রাম হাটহাজারী থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে।  বিছিন্ন হওয়ায় চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত এ এলাকার মানুষ।  নেই কোন কমিউনিউটি সেন্টার ও স্বাস্থ্য কেন্দ্র।  অসুস্থ হলে রাউজান অথবা চট্টগ্রাম নগরীতে চিকিৎসার জন্য যেতে হয়।  সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায় দুটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন নির্মান ব্যতিত হয়নি কোন উন্নয়ন।  বাড়ীঘোনার সড়ক গুলোর বেহাল অবস্থা।  হালদা নদীর উপর ঝুঁকিপূর্ণ লৌহার ব্রীজটি যেই কোন সময় বিধ্বস্ত হতে পারে।  অপরদিকে রাউজান উপজেলার পশ্চিম বিনাজুরী ও রাউজান পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ গহিরা মোবারক খীল এলাকার পাশ দিয়ে প্রবাহিত হালদা নদীর বাঁক কেটে দেওয়ায় ও হালদা নদীর গতি পরির্বতন হয়ে হটহাজারী উপজেলার গড়দুয়ারা ইউনিয়নের এলাকার শতাধিক পরিবার বিছিন্ন হয়ে পড়েছে।  তারা রাউজান উপজেলার পশ্চিম বিনাজুরী, রাউজান পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ গহিরা, মোবারক খীল এলাকার সাথে সংযুক্ত হয়ে বসবাস করে আসছে।  এ এলাকার মানুষ ও তাদেও সন্তানেরা দক্ষিণ গহিরা খান সাহেব আবদুল করিম উচ্চ বিদ্যালয়, খান সাহেব আবদুল করিম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ও গহিরা কলেজে গিয়ে লেখাপড়া করছে।  এছাড়া তারা সিপাহির ঘাট থেকে নৌকা দিয়ে হালদা নদী পাড় হয়ে গড়দুয়ারা উঠে হাটহাজারী উপজেলা সদর ও চট্টগ্রাম নগরীতে বিভিন্ন কাজে যাতায়াত করতে হয়। 


keya