৯:২৪ এএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১, রোববার | | ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩




যতদিন বাঁচি, বাঁচি যেন ভালোবাসা নিয়ে: হানিফ সংকেত

২৪ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৬ এএম |


এসএনএন২৪.কম: নন্দিত উপস্থাপক, পরিচালক, অভিনেতা, প্রযোজক, লেখক হানিফ সংকেত।  শনিবার (২৩ অক্টোবর) তুমুল জনপ্রিয় এই মানুষটির জন্মদিন। 

১৯৫৮ সালের আজকের এই দিনে বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। 

জন্মদিনের দিন বিকেলে হানিফ সংকেত সামাজিক মাধ্যমে এক স্ট্যাটাস শেয়ার করেছেন।  সেখানে তিনি লেখেন, আমার জন্মদিন নিয়ে তেমন কোন প্রচার-প্রচারণা না থাকা সত্ত্বেও এই ব্যস্ততম জীবনে আমার এই জন্ম তারিখটি মনে রেখে যারা আমাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন-সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা।   

তিনি আরও লেখেন, আপনাদের এই অকৃত্রিম ভালোবাসাই আমার চলার পথের পাথেয়।  যতদিন বাঁচি, বাঁচি যেন ভালোবাসা নিয়ে।  বাঁচি যেন হৃদয়ের উত্তাপ বিলিয়ে।  সবার দোয়া চাই, ভালো থাকবেন সবাই।   

হানিফ সংকেত প্রয়াত ফজলে লোহানীর ‘যদি কিছু মনে না করেন’ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান দিয়ে খ্যাতি লাভ করেন।  এরপর দেশের ইতিহাসে সর্বাধিক জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’ নিয়ে হাজির হন তিনি। 

বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি)তে আশির দশক থেকেই তুমুল জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’।  অনুষ্ঠানটিতে কথার জাদু দিয়ে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন হানিফ সংকেতও।  অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে তিনি তুলে ধরেছেন সামাজিক অসঙ্গতি, দুর্নীতিবিরোধী কার্যক্রমও। 

নাটক নির্মাতা হিসাবেও হানিফ সংকেত দেখিয়েছেন নির্মাণের মুন্সিয়ানা।  তার নির্মিত নাটকের মধ্যে ‘আয় ফিরে তোর প্রাণের বারান্দায়’, ‘দুর্ঘটনা’, ‘তোষামোদে খোশ আমোদে’, ‘কিংকর্তব্য’, ‘কুসুম কুসুম ভালোবাসা’, ‘শেষে এসে অবশেষে’। 

বেশ কয়েকটি ব্যঙ্গ ও রম্য রচনা লিখেছেন হানিফ সংকেত।  ‘চৌচাপটে’, ‘এপিঠ ওপিঠ’, ‘ধন্যবাদ’, ‘অকাণ্ড কাণ্ড’, ‘খবরে প্রকাশ’, ‘ফুলের মতো পবিত্র... ’, ‘প্রতি ও ইতি’, ‘আটখানার পাটখানা’ এরমধ্যে অন্যতম। 

সামাজিক কার্যক্রমের জন্য ২০১০ সালে একুশে পদক পুরস্কার পান হানিফ সংকেত।  পরিবেশ শিক্ষা ও প্রচারের জন্য ২০১৪ সালের জাতীয় পরিবেশ পদক দেয়া হয় তাকে।  এ ছাড়া তিনি দেশে-বিদেশে বহু পুরস্কার আর সম্মানে ভূষিত হয়েছেন তিনি।