১:৪৭ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার | | ২১ মুহররম ১৪৪৪




সকল ধর্মের অংশগ্রহণে সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভান্ডারী (কঃ)'র ১১৬ তম ওরশ শরীফ সম্পন্ন

২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৪২ এএম |


নকিব ছিদ্দিকী:

ফটিকছড়ির মাইজভান্ডারে গতকাল ১০ মাঘ, মাইজভান্ডার দরবার শরীফ অধ্যাত্ম শরাফতের প্রতিষ্ঠাতা গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী হযরত মওলানা শাহ ছুফী সৈয়দ আহমদ উল্লাহ (কঃ) এঁর ১১৬ তম ওরশ শরীফ অত্যন্ত ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ মর্যাদায় সম্পন্ন হয়েছে।  পহেলা মাঘ থেকে, পীরে তরিকত ও সাজ্জাদানশীন আলহাজ্ব হযরত মওলানা শাহ ছুফী সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভান্ডারী (মঃ) এঁর আয়োজন ও ব্যবস্থাপনায় ১০ দিনব্যাপী বিভিন্ন মানবকল্যাণ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হয়েছে।  সমাপনী দিবসের কর্মসূচি হিসেবে বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিকে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বাণী সম্বলিত বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ, সারাদিনব্যাপী পবিত্র খতমে কোরআন শরীফ, মিলাদ, তাওয়াল্লোদে গাউছিয়া ও জিকির মাহফিল, হযরত গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী (কঃ) এঁর জীবন, কর্ম, শিক্ষা ও তাছাউফ ভিত্তিক আলোচনা এবং মাইজভান্ডারী ছেমা মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।  সাজ্জাদানশীন-এ দরবারে গাউছুল আজম আলহাজ্ব হযরত মওলানা শাহ ছুফী সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভান্ডারী (মঃ) এঁর আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ওরশ শরীফের সকল কর্মসূচি সমাপ্ত হয়।  এসময় অনলাইন প্লাটফর্মের মাধ্যমে দেশ-বিদেশের অসংখ্য ভক্ত আশেকানবৃন্দ উক্ত মোনাজাত শরীফে অংশগ্রহণ করেন।  নায়ের সাজ্জাদানশীন ও মোন্তাজেমে দরবার আলহাজ্ব শাহ ছুফী সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভান্ডারী (মঃ) বলেন- এ বছর দেশ-বিদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত ভক্ত, জায়েরীনদের সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে, সরকার ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বাস্থ্যবিধি মেনে যুগপৎ পদ্ধতিতে (ফিজিক্যাল ও ভার্চুয়াল) ওরশ শরীফের কর্মসূচিসমূহ অত্যন্ত সুশৃঙ্খলরূপে ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ইহা সুফীগণের প্রগতিশীলতার অনন্য উদাহরণ।  এসময় তিনি ওরশ শরীফ সুষ্ঠুভাবে আয়োজন ও ব্যবস্থাপনায় বিভিন্ন আঙ্গিকে দায়িত্ব পালনকারী সকলের প্রতি আন্তরিক মোবারকবাদ জ্ঞাপন করেন ।  সেসাথে গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী (কঃ) প্রবর্তিত উছুলে ছাব'য়া তথা আত্মশুদ্ধির সপ্তকর্মদ্ধতি অনুসরণ করার জন্য সকলকে উদাত্ত আহ্বান জানান।  


keya