১০:৫৩ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯, রোববার | | ১৫ শা'বান ১৪৪০




পরিবহণ শ্রমিকদের হয়রানী বন্ধসহ ন্যার্য মুল্যের রেশন কার্ড চালুর দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

১৭ জুন ২০১৭, ০৯:১২ এএম | সাদি


এম. সাইফুর রহমান, খাগড়াছড়ি: সড়কে লাগামহীন চাঁদাবাজি, পথে পথে শ্রমিকদের হয়রানি, কুমিল্লার দাউদকান্দি এবং চট্টগ্রামের বড় দারোগাহাট এলাকায় ওজন পরিমাপের নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায় বন্ধের দাবী জানিয়েছে খাগড়াছড়ির বেশ কয়েকটি পরিবহন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।  শুক্রবার বিকেলে খাগড়াছড়ি বাস টার্মিনাল এলাকায় খাগড়াছড়ি করেছে সড়ক পরিবহণ সমবায় সমিতি লিমিটেড ও খাগড়াছড়ি জেলা ট্টাক শ্রমিক ইউনিয়ন আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পরিবহণ শ্রমিক সংগঠনের নেতারা অভিযোগ করেন, দেশজুড়ে সড়কে লাগামহীন চাঁদাবাজী ও বিভিন্ন ধরনের হয়রানিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে অসহায় পরিবহন চালক-শ্রমিকরা। 

যে শ্রমিকরা প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাধারণ যাত্রীসহ মালামাল দেশের এ প্রান্ত থেকে ঐ প্রান্তে পৌছে দিচ্ছে তারাই আজ সকলের কাছে অবহেলিত।  সড়কে তারা দিনে পর দিন লাঞ্চিত, বঞ্চিত হলেও দেখার কেউ নেই।   কিছু দুস্কৃতিকারী সড়কে নিজেদের পকেট ভারী করতে ওজন পরিমাপের নামে অতিরিক্ত আদায়সহ শ্রমিকদের নানা ভাবে হেনস্থা করছে।  এছাড়াও সড়কে পুলিশ ও মাস্তানদের চাঁদাবাজির এখন তুঙ্গে।  বর্তমানে পরিবহণ শ্রমিকরা অর্ধহারে অনাহারে জীবন যাপন করছে।  তাই পরিবহণ শ্রমিকদের জন্য ন্যায্য মূল্যের রেশন কার্ড ব্যবস্থা চালুর দাবী জানান পরিবহণ চালক ও শ্রমিক নেতারা। 

সংবাদ সম্মেলনে খাগড়াছড়ি চালক সমবায় সমিতির সভাপতি মনোতোষ ধর ও খাগড়াছড়ি ট্টাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি স্বপন কুমার সাহা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আর্কষণ করে বলেন, সারাদেশের মানুষের সুখে-দু:খে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাশে পায়।  তিনি পরিবহণ শ্রমিকদের দিকে একটু সুদৃষ্টি দিলেই এ অসহায় ও খেটে খাওয়া এ সকল শ্রমিকরা অর্ধহারে-অনাহারে জীবন যাপন কাটানোর হাত থেকে রক্ষা পাবে।  এছাড়াও শ্রমিকদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রধানসহ সড়কে হয়রানী বন্ধে সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবী জানানো হয়।