৩:৪৮ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, সোমবার | | ৪ মুহররম ১৪৩৯

South Asian College

দৌলতদিয়া ঘাটে গাড়ির লম্বা লাইন, দীর্ঘক্ষণ আটকে যাত্রী দুর্ভোগ চরমে

০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৬:৫০ পিএম | রাহুল


আবুল হোসেন,গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া এবং মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে ফেরি সংখ্যা বাড়ানো হলেও গাড়ির চাপ কমেনি।  গতকাল বুধবার দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট থেকে গাড়ির লাইন গোয়ালন্দ বাজার ছাড়িয়ে যায়।  শত শত গাড়ির কয়েক হাজার মানুষের দুর্ভোগ চরমে পৌছে।  আরো তিন দিন এরকম গাড়ির চাপ থাকবে বলে কর্তৃপক্ষের ধারণা। 

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয় জানায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ছোট-বড় ১৯টি ফেরি দিয়ে ঈদের বাড়তি গাড়ি পার করা হলেও গতকাল সকালে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌপথ থেকে আরো দুটি ফেরি আনা হয়।  বর্তমানে এ নৌপথে ছোট-বড় ২১টি ফেরি চলছে।  কিন্তু গতকাল দুপুরে রোরো ফেরি শাহ আলী ও ইউটিলিটি চন্দ্র মল্লিকা যান্ত্রিক ক্রটিতে পাটুরিয়ায় বসিয়ে রাখা হয়েছে।  দুপুরে দেখা যায়, দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট থেকে গাড়ির সিরিয়াল পাঁচ কিলোমিটার ছাড়িয়ে গোয়ালন্দ বাজার বাসষ্ট্যান্ড ছাড়িয়ে গেছে। 

স্ত্রী-সন্তান নিয়ে হেঁটে ঘাটে যাচ্ছিলেন ঢাকাগামী হেলাল সরদার, নজরুল শেখসহ কয়েকজন।  প্রচন্ড গরমের মধ্যে সবারই নাভিশ^াস অবস্থা।  আলাপকালে জানান, ঘাট থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার আগেই অটোরিক্সা থেকে পুলিশ নামিয়ে দেয়।  উপায় না পেয়ে প্রচন্ড রৌদ ও গরমের মধ্যে হেটে ঘাটে যেতে হচ্ছে।  কিন্তু ছোট শিশুদের নিয়ে চরম বেকায়দায় পড়তে হয়েছে অনেককে।  তাদের মতো এরকম অসংখ্য যাত্রীদের চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হয়। 

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম জানান, আজ (বুধবার) শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌপথে চলাচলরত এনায়েতপুরী ও ক্যামেলিয়া নামক আরো দুটি ফেরি আসায় এই নৌপথে ২১টি ফেরি চলছে।  তবে দুপুরে সাময়িক ভাবে এই নৌপথের দুটি ফেরি বসে পড়ে।  তবে ফেরি দুটি খুব দ্রæত ফেরি বহরে যুক্ত হবে।  এত গাড়ির চাপ আগামী আগামী শনিবার পর্যন্ত থাকবে বলে তিনি মনে করেন।