৩:৪৩ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৭, শনিবার | | ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

রোহিঙ্গা নির্যাতন : ওআইসির বৈঠক ডাকার আহ্বান মাকারেম শিরাজির

০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২:৩৪ এএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনীর গণহত্যার বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য ইসলামি সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বিশেষ অধিবেশন ডাকার আহ্বান জানিয়েছেন ইরানের শীর্ষ পর্যায়ের আলেম গ্র্যান্ড আয়াতুল্লাহ নাসের মাকারেম শিরাজি। 

তিনি বলেছেন, এ অবস্থার অবসানে আন্তর্জাতিক এ সংস্থাকে দায়িত্ব পালন করতে হবে ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।  রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর মিয়ানমারের উগ্রবাদী বৌদ্ধদের বর্বতার বিষয়ে বিশ্বের নীরবতার সমালোচনা করে আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজি বলেন, দেশটির বৌদ্ধরা মিয়ানমারকে মুসলিম-শূন্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

এশিয়ার এই দেশটির মুসলমানদের ওপর গণহত্যার বিষয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নীরবতারও সমালোচনা করেন ইরানের এ শীর্ষস্থানীয় আলেম।  তিনি বলেন, যদি ওআইসি রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যার বিষয়টি গুরুত্বসহকারে আলোচনা করে তাহলে আন্তর্জাতিক অন্য সংস্থাগুলোও সক্রিয় হতে বাধ্য হবে। 

প্রসঙ্গত, গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে পুলিশের ৩০টি তল্লাশি চৌকিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলায় ১২ পুলিশ নিহতের পর রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নজিরবিহীন কঠোর অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।  সহিংসতায় রাখাইনে অন্তত ৪০০ রোহিঙ্গার প্রাণহানি ঘটেছে। 

জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর’র সর্বশেষ তথ্য বলছে, গত ১২ দিনে বাংলাদেশে প্রায় এক লাখ ৪৬ হাজার রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে।  গত বছরের অক্টোবরে রাখাইনে একই ধরনের সহিংসতার ঘটনা ঘটে।  সেসময়ও রোহিঙ্গাদের ঢল নামে বাংলাদেশ সীমান্তে।  দুই দফার এ সহিংসতায় বাংলাদেশে প্রায় দুই লাখ ৩৩ হাজার রোহিঙ্গা পালিয়ে এসেছে।  মিয়ানমার নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে রাখাইনে বাড়ি-ঘর ধ্বংস ও অত্যধিক বলপ্রয়োগের মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের তাড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। 

তবে মিয়ানমার সেনাবাহিনী বলছে, তারা রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে।  এই বিদ্রোহীরা রাখাইনে বেসামরিক নাগরিকদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। 

Abu-Dhabi


21-February

keya