২:২৯ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | | ২৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৮

South Asian College

নোট-গাইড-কোচিং-প্রাইভেট বন্ধে আসছে শিক্ষা আইন

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০:০৭ এএম | নিশি


এসএনএন২৪.কম : নোট ও গাইড বই নিষিদ্ধ এবং শিক্ষকদের প্রাইভেট পড়ানো বন্ধের বিধান রেখে হচ্ছে শিক্ষা আইন।  বন্ধ হবে সব ধরনের কোচিং সেন্টার।  আইন অমান্য করলে সর্বোচ্চ এক বছর জেল ও জরিমানা হবে।  দুই সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিসভায় উঠবে প্রস্তাবিত এ আইনের খসড়া। 

শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রাইভেট পড়তে বাধ্য করা, প্রতিষ্ঠানে সময় না দিয়ে অন্যত্র ক্লাস নেয়ার অভিযোগ দীর্ঘদিনের।  প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে বিভিন্ন কোচিং সেন্টার জড়িত থাকার অভিযোগও পুরনো।  এসব বন্ধে শিক্ষামন্ত্রণালয় কয়েকবার উদ্যোগ নিয়েও পুরোপুরি সফল হয়নি। 

শিক্ষা আইনের খসড়ায় কোচিং সেন্টার চালালে ২ লাখ টাকা জরিমানা বা ছয় মাসের জেল বা উভয় দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে।  কোন শিক্ষক প্রাইভেট পড়ালে হারাবেন চাকরি।  এছাড়া নোট বা গাইড বই মুদ্রণ, বাঁধাই, প্রকাশ ও বাজারজাত করলে ৫ লাখ টাকা জরিমানা বা এক বছর জেল বা উভয় দণ্ড ভোগ করতে হবে।  

শিক্ষাবিদরা বলছেন, পাঠ্যবইয়ে ত্রুটি এবং ঠিকভাবে ক্লাস না নেয়ায় শিক্ষার্থীরা কোচিং এবং নোট বইয়ের দিকে ঝুঁকে।  তাই এগুলো বন্ধের আগে স্কুল-কলেজে মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। 

শিক্ষাখাতে সব অনিয়ম বন্ধে আইনের কঠোর প্রয়োগ চান অভিভাবকরা।  খসড়া আইনে ৫১টি ধারা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।  শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বেতন ও ফি এ আইনে নির্ধারণ করা হবে।