৮:৩৭ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, শনিবার | | ২ মুহররম ১৪৩৯

South Asian College

মঠবাড়িয়ায় ছেলের হাতে মা খুন ঘাতক ছেলে গ্রেফতার

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৭:০০ পিএম | সাদি


মুহাঃ দেলোয়ার হোসাইন, পিরোজপুর প্রতিনিধি : মঠবাড়িয়ায় ছেলের হাতে মা খুন হয়েছেন।  ছেলে আ. রহিম খান(৩০) মাটি কাটা কোদাল দিয়ে কুপিয়ে মা সাজেদা বেগম(৫৮)কে হত্যা করে লাশ বাড়ির সামনে পুকুরে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। 

নিহত সাজেদা বেগম উপজেলার বড়মাছুয়া ইউনিয়নের ভোলমারা গ্রামের কৃষক আ. জব্বার খানের স্ত্রী।  তিনি ৫ সন্তানের জননী ছিলেন।  এঘটনায় নিহতের স্বামী জব্বার খান বাদি হয়ে মঙ্গলবার ছেলেকে একমাত্র আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।  পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘাতক আ. রহিম খানকে পার্শ্ববর্তী পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী থেকে গ্রেফতার করেছে।  এদিকে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মঙ্গলবার সকালে জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

মামলা সূত্রে জানাগেছে, কোরবানি ঈদে মেঝ ছেলে আল-আমীন মায়ের খরচের জন্য কিছু টাকা পাঠান।  ওই টাকা থেকে এক হাজার টাকা বড় ছেলে ঘাতক আ. রহিম মায়ের কাছে দাবি করেন।  মা টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানান।  সেই থেকে রহিম মায়ের উপর ক্ষিপ্ত থাকে।  সোমবার দুপুরে মা সাজেদা বেগম বাড়ির কাছে সবজি ক্ষেতে ছাগলের জন্য ঘাস কাটতে যান।  এ সময় মা-ছেলের মধ্যে পুনরায় ওই এক হাজার টাকা নিয়ে বাকবিতন্ডা হয়।  এক পর্যায়ে হাতে থাকা মাটি কাটা কোদাল দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে পালিয়ে যায়। 

পরে পালিয়ে গিয়ে ছেলেই ফোন করে মাকে হত্যার কথা তার বড় বোন আমেনা বেগমের কাছে জানায়।  খবর পেয়ে সোমবার রাতে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। 

মঠবাড়িয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাজহারুল আমিন জানান, নিহতের মুখমন্ডল ও ডান হাতে কোপের চিহ্ন রয়েছে।  ঘাতক ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।