১১:২৯ এএম, ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার | | ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

ইনকিলাবকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম বিএফইউজে-ডিইউজের

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৮:১২ এএম | নিশি


এসএনএন২৪.কম : বুধবারের (১৩ সেপ্টেম্বর) মধ্যে ইনকিলাবের চাকুরিচ্যুত সাংবাদিক-কর্মচারীদের সমুদয় পাওনা পরিশোধ না করলে বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) ইনকিলাব কার্যালয়ে অবস্থানসহ একগুচ্ছ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফেড়ারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিউইজে)। 

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এই আল্টিমেটাম ঘোষণা করেন বিএফইউজে সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল ও মহাসচিব ওমর ফারুক, ডিউইজে সভাপতি শাবান মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী। 

ডিইউজের দফতর সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জল সাক্ষরিত বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, ইনকিলাব থেকে অন্যায়ভাবে চাকুরিচ্যুতদের বকেয়া বেতন ও ন্যায্য পাওনা নিয়ে পত্রিকাটির সম্পাদক ও প্রকাশক এ এম এম বাহাউদ্দীন বারবার কথা দিয়েও কথা রাখেনি, যা কোনো মতেই গ্রহণযোগ্য নয়। 


অবিলম্বে ইনকিলাবের চাকুরিচ্যুত সাংবাদিক-কর্মচারীদের সমুদয় পাওনা পরিশোধের আহ্বান জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বৃহত্তর ও কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হলে তার দায়-দায়িত্ব ইনকিলাব সম্পাদক ও প্রকাশককে বহন করতে হবে। 

উল্লেখ্য, ইনকিলাব কর্তৃপক্ষ দীর্ঘ ২৬ মাসের বকেয়া বেতনসহ সার্ভিস বেনিফিট মনগড়া হিসেবে কষে তার শতকরা ৩০ ভাগ গ্রহণ করে শতভাগ বুঝে পেলাম মর্মে ৩শ’ টাকার ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করার প্রস্তাব দেয়।  তাতে রাজি না হওয়ায় গত ৩০ এপ্রিল থেকে ৯ মে পর্যন্ত ইনকিলাব থেকে শতাধিক সাংবাদিক-কর্মচারীকে ছাঁটাই করে কর্তৃপক্ষ। 

দীর্ঘ ৫ মাস নানামুখী কর্মসূচী পালনের একপর্যায়ে ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দীন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দকে প্রতিশ্রুতি দেন যে, অবিলম্বে তিনি সমুদয় পাওনা পরিশোধ করবেন।  কিন্তু সে কথা রাখেনি এ এম এম বাহাউদ্দীন।