১০:২৫ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৮, সোমবার | | ৩ জ্বিলকদ ১৪৩৯


নান্দাইলে বিয়ের প্রলোভনে যুবতী ধর্ষন, ৬ মাসের অন্তসত্বা অবশেষে মামলা দায়ের

০৫ অক্টোবর ২০১৭, ০৫:৫৬ পিএম | নকিব


মো. শাহজাহান ফকির, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের কাদিরপুর গ্রামের মোঃ হারিস উদ্দিনের পুত্র মোঃ সোহেল মিয়া (২৫) একই গ্রামের আবু তালিবের মেয়ে মোছাঃ শাপলা  (২১)কে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষনের ফলে যুবতী বর্তমানে ৬ মাসের গর্ভবতী হয়েছে। 

যুবতী সোহেল মিয়াকে বার বার বিয়ের জন্য চাপ দিলেও সুচতুর সোহেল মিয়া তাকে ফেলে রেখে বর্তমানে আত্মগোপনে চলে যায়।  উক্ত বিষয়ে এলাকায় একাধিকবার দেন-দরবার হলেও বিষয়টি ফয়সালা না হওয়ায় শাপলা নিজে বাদী হয়ে জেলা ময়মনসিংহের বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতে ২৫৯/১৭নং মামলা দায়ের করেছে। 

মামলার এজাহার সূত্রে জানাযায়, উক্ত যুবতীকে ১লা ফেব্রুয়ারী ২০১৭ প্রথমবার, ১৫ই মার্চ ২০১৭ ২য় দফা এবং ১০ই আগস্ট ২০১৭ বিয়ের প্রলোভনে রাতভর তার সাথে মেলামিশা করে। 

মামলার স্বাক্ষী কাদিরপু গ্রামের আব্দুল মতিন, আবুল তালেব, আফাজ উদ্দিন মিয়া, খোকন, আব্দুস সালাম, মিজান, মুনায়েম, রুসুল মিয়া জানান নিরীহ যুবতীকে উক্ত সোহেল বিয়ের প্রলোভনে স্বামী-স্ত্রীর মত মেলামিশা করায় বর্তমানে উক্ত যুবতী ৬ মাসের গর্ভবতী অবস্থায় আছে। 

বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মামলাটি নথিভূক্ত করে সাত কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য নান্দাইল উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা বরাবর পাঠিয়েছে। 

সমাজ সেবা কর্মকর্তা জানান, তিনি বুধবার (৪ঠা অক্টোবর) পর পর দুইদিন তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন এবং যথাসময়ে বিজ্ঞ আদালতে রিপোর্ট দায়ের করবেন।