১০:১৫ এএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, রোববার | | ২৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

মালয়েশিয়ায় বন্দীশিবিরে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন বাংলাদেশী বন্দীরা

০৬ অক্টোবর ২০১৭, ১১:৫০ এএম | নিশি


এসএনএন২৪.কম : মালয়েশিয়ায় বন্দীশিবিরে খুবই মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন বাংলাদেশী বন্দীরা, নিরব হাই-কমিশন। 

মালয়েশিয়ার বিভিন্ন বন্দী শিবির ও কারাগারে ৪ হাজারের বেশি বাংলাদেশি মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন বলে হাই কমিশন সূত্রে জানা গেছে।  মালয়েশিয়ায় ১২টি বন্দী শিবিরেই ১ হাজার ৭২৩ জন আর বিভিন্ন কারাগারে সাজা ভোগ করছেন ১ হাজার ৯২৭ জন বাংলাদেশি। 

সূত্র জানায়, সিমুনিয়া ক্যাম্পে ১৩২, লেঙ্গিং ক্যাম্পে ২৩৬, লাঙ্গ ক্যাম্পে ২৫০, জুরুত ক্যাম্পে ৫৬, তানাহ মেরায় ক্যাম্পে ৪৮, মাচাপ উম্বু ক্যাম্পে ১৭৯, পেকা নানাস ক্যাম্পে ১২০, আজিল ক্যাম্পে ১২৬, কেএলআইএ সেপাং ডিপো ক্যাম্পে ৮১, ব্লান্তিক ক্যাম্পে ১১৩, বুকিত জলিল ক্যাম্পে ২৩৪ ও পুত্রজায়া ক্যাম্পে ১৮০ জন বাংলাদেশি আটক আছেন। 

মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন পুলিশের উপ-সহকারী পরিচালক জোসামি মাস্তান বলেন, বিভিন্ন কারাগার ও ক্যাম্পে যারা আটক আছেন, তাদের বেশির ভাগই অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ কিংবা অবৈধভাবে থাকার কারণে গ্রেফতার হয়েছেন।  আটকদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ার অভিবাসন আইন, ১৯৫৯-এর ধারা ৬(১) সি/১৫ (১) সি এবং পাসপোর্ট আইন, ১৯৬৬-এর ১২(১) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। 

সাজা খেটে দেশে ফেরা বাংলাদেশিদের অনেকে অভিযোগ করেছেন, ক্যাম্পগুলোতে প্রায়ই বাংলাদেশিদের ওপর নির্যাতন করা হয়।  এমনকি কেউ কেউ ক্যাম্পেও মারা যান।  অনেক সময় ঠিকমতো খাবার দেয়া হয় না।  দীর্ঘদিন জেলে বা ক্যাম্পে থাকলেও হাই কমিশনের পক্ষ থেকে তাদের দেশে ফেরত নেয়ার কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি বলেও জানান তারা।